• লা লিগা
  • " />

     

    কোপা দেল রে থেকে রিয়ালের বিদায়

    সেল্টা ভিগোর সাথে দ্বিতীয় লেগে ২-২ গোলে ড্র করে কোপা দেল রে থেকে বিদায় নিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। দুই লেগ মিলে ৪-৩ গোলে জিতে প্রতিযোগিতার সেমিফাইনালে উঠে গেছে সেল্টা ভিগো। ৬২ মিনিটে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর করা গোলে ম্যাচে সমতায় ফেরার পর জয়ের আশা জাগালেও শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে আর মাঠ ছাড়তে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ।

    প্রথম লেগে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২-১ গোলে হারের পর, দ্বিতীয় লেগে জয়ের বিকল্প ছিল না রিয়াল মাদ্রিদের। অনুমিতভাবেই শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে রিয়াল। আর প্রথম লেগের লিড পুঁজি করে কিছুটা রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতেই শুরু করে সেল্টা।

    জয়ের জন্য খেলতে থাকা রিয়াল প্রথমার্ধ শেষ করে পিছিয়ে থেকেই। দানিলোর ৪৪ মিনিটের আত্মঘাতী গোল ম্যাচে এগিয়ে দেয় সেল্টা ভিগোকে। এর আগে ২৬ মিনিটে রোনালদোর করা হেড গোলকিপার সার্জিও আলভারেজ ঠেকিয়ে দেয়ার পর বারপোস্টে লেগে ফেরত না আসলে অবশ্য গল্পটা অন্যরকমও হতে পারত।

    সেল্টার মাঝমাঠে থেকে শুরু করা সাজানো এক আক্রমণ থেকে স্ট্রাইকার জন গুইদেত্তির নেয়া শট রিয়াল গোলরক্ষক ফ্রানিসস্কো কাসিলা ঠেকিয়ে দিলেও গোলের হাত থেকে বাঁচাতে পারেননি। ফিরতি বল দানিলোর পায়ে লেগে বল ঢুকে যায় জালে। 

    দ্বিতীয়ার্ধে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকা রিয়াল ম্যাচে ফেরে রোনালদোর গোলে। নিজের ক্যারিয়ারের পঞ্চাশতম ফ্রি-কিক গোলে রোনালদো ম্যাচে সমতা আনেন। রোনালদোর গোলের পর জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকলেও নিমিষেই তা ফিকে হয়ে যায় রিয়াল সমর্থকদের। ৮৫ মিনিটে দানিয়েল ওয়াস গোল করে আরও এগিয়ে দেন সেল্টাকে। দুই লেগ মিলিয়ে ম্যাচে তখন ৪-২ গোলের লিড সেল্টার। ৯০ মিনিটে লুকাস ভাস্কেজের হেডে করা গোল শেষ পর্যন্ত তাই শুধু হারের ব্যবধানটাই কমাতে পেরেছে রিয়ালের জন্য।




    এই নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কোপা দেল রে এর শেষ চারে জায়গা করে নিল সেল্টা ভিগো। সাথে সেল্টা ম্যানেজার এদুয়ার্দো বেরিজ্জোও একটা চক্র পূরণ করে নিলেন! লা লিগার একমাত্র ম্যানেজার হিসেবে লুইস এনরিকে, ডিয়েগো সিমিওনের দলের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে জয়ের রেকর্ড ছিল এতোদিন তার। সেই তালিকায় এবার যোগ হল জিনেদিন জিদানের নামটাও। 

    রিয়াল মাদ্রিদ বাদ পড়লেও নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ঠিকই উঠে গেছে সেমিফাইনালে। অবশ্য এইবারের বিপক্ষে তাদের স্কোরলাইনটাও রিয়ালের মতোই! আজ ২-২ গোলে ড্র করলেও দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলের বড় জয়েই সেমিতে জায়গা করে নিয়েছে সিমিওনের দল।




    অন্যদিকে ইংলিশ লিগ কাপে সাউদাম্পটনের কাছে প্রথম লেগ হারার পর দ্বিতীয় লেগেও হেরে ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে ক্লপের লিভারপুল। শেইন লঙয়ের ৯০ মিনিটের গোলে ম্যাচে জয় পায় সাউদাম্পটন। সেমিফাইনালের দুই লেগ মিলিয়ে লিভারপুলের বিপক্ষে সাউদাম্পটনের জয়টা ২-০ গোলের।




    স্পেন, ইংল্যান্ডে অঘটন ঘটলেও কোপা ইতালিয়াতে অনুমিত দলটাই জিতেছে। এসি মিলানকে ২-১ গোলে হারিয়েছে জুভেন্টাস। অবশ্য জয়টা সহজ হয়নি তুরিনের ওল্ড লেডিদের জন্য। পাওলো দিবালা আর মিরালেম পিয়ানিচের গোলে প্রথমার্ধ শেষের আগেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় জুভে। ৫৩ মিনিটে কার্লস বাক্কা মিলানের হয়ে এক গোল শোধ দিয়ে ম্যাচ জমিয়ে দেন। তবে এর এক মিনিট পরই মিডফিল্ডার ম্যানুয়েল লোকাতেল্লি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে দশ জনের দলে পরিণত হয় এসি মিলান।
    এরপর দুই দলের কেউই আর গোল না করতে পারলে ২-১ স্কোরলাইনেই শেষ হয় ম্যাচ। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন