• ভারত-বাংলাদেশ সিরিজ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ফিল্ডিংই আমাদের ডুবিয়েছে: মুশফিক

    ওই আউটের জন্য নিজেকে অনেক দিনই ক্ষমা করতে পারবেন না। প্রথম ইনিংসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ক্রিজে পড়ে ছিলেন, শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়েছেন। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে পরিস্থিতির দাবিটা যখন তাঁর কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি, মুশফিক তখনই নিজের উইকেটটা ছুঁড়ে দিয়ে এলেন। তবে ম্যাচ শেষে ওই প্রসঙ্গটা এড়িয়ে গেলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক, বরং সতীর্থদের নিয়ে গর্বই করলেন। ম্যাচটা হেরে যাওয়ার জন্য দায়ী করলেন ফিল্ডিংকেই।

    মুশফিকের অবশ্য আফসোস হতেই পারে। ম্যাচের শুরু থেকেই একের পর এক যেভাবে সুযোগ হাতছাড়া করেছেন, শেষ পর্যন্ত তার মাশুলই দিতে হয়েছে। নিজে তো স্টাম্পিং মিস করেছেন, রান আউটের সহজতম সুযোগ আর কয়েকটি ক্যাচও হয়েছে হাতছাড়া। মুশফিক তাই বললেন, “অবশ্যই প্রথম ইনিংসে আমরা অনেক সুযোগ সৃষ্টি করেছি। বোলিংয়ে বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছিলাম। ভারতকে ৫৫০ থেকে ৬০০র মধ্যে আটকে রাখতে পারলেও আমাদের আরও ভালো একটা সুযোগ ছিল। ফিল্ডিংটাই দিন শেষে আমাদের ডুবিয়েছে।”

    পরিসংখ্যানের হিসেবে মুশফিকদের কিছু প্রাপ্তিও আছে। পঞ্চম দিনের চা বিরতি পর্যন্ত ম্যাচ নিয়ে যাওয়া, দুই ইনিংসেই অন্তত ১০০ ওভার খেলা- ভারতের মাটিতে হারার আগে হেরে বসেনি। চতুর্থ ইনিংসে ভারতে বাংলাদেশের চেয়ে বেশি ওভার খেলার কীর্তিই আছে সাতটি। মুশফিক তাই দলের সবাইকে নিয়ে গর্বই করলেন, “দ্বিতীয় ইনিংসে আমাদের কাজটা অনেক কঠিন ছিল। ভারতের পেস ও স্পিনে বিকল্প বেশি ছিল। আশা করি এসব থেকে আমরা শিখতে পারব। তবে আমি ছেলেদের নিয়ে সত্যিই গর্বিত। এমনকি টেল এন্ডাররাও দারুণ লড়াই করেছে। আমাদের শুধু ছোটখাট কিছু জায়গায় কাজ করতে হবে। আমাদের মেহেদী ভালো বল-ব্যাট করেছে, তাইজুল ভালো বল করেছে। ভারতের মাটিতে পঞ্চম দিন খেলা মানে আমরা সবাইকেই চ্যালেঞ্জ করতে পারব। সামনেই আমাদের শ্রীলঙ্কা সফর আছে, আশা করি সেখানে আমরা আরও ভালো কিছু করতে পারব। ”

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন