• কনফেডারেশনস কাপ ২০১৭
  • " />

     

    পেনাল্টি নাটকে পর্তুগালের সান্ত্বনার জয়

    কনফেডারেশনস কাপের তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচে মেক্সিকোকে ২-১ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল। মস্কোতে নির্ধারিত সময়ে ১-১ এ শেষ হলে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ১০২ মিনিটে আদ্রিয়ান সিলভার পেনাল্টি গোলে জয় নিশ্চিত হয় পর্তুগালের। 

    দ্বিতীয়ার্ধে আত্মঘাতী গোল হজম করে পিছিয়ে পড়েছিল পর্তুগাল। ৯১ মিনিটে পেপের গোলে সমতায় ফেরে। এরপর ১০২ মিনিটে মেক্সিকো রাইটব্যাক লাইয়ুন বক্সের ভেতর হাত দিয়ে বল ঠেকিয়ে দিলে পেনাল্টি পেয়ে যায় পর্তুগাল। সেখান থেকেই আসে জয়সূচক গোল। অবশ্য আরও একবার পেনাল্টি পেয়ে যেতে পারত মেক্সিকো। ১১৮ মিনিটে হেক্টর মরেনোকে ডিবক্সের ভেতর ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলেও পেপে এড়িয়ে গেছেন রেফারির চোখ।     

    তৃতীয় স্থান নির্ধারণী হলেও মাঠের খেলায় ম্যাড়মেড়ে ভাব ছিল না মোটেই। বরং পেনাল্টি, লাল কার্ড, শেষ মুহুর্তের গোল- সবকিছু মিলে উপভোগ্য এক ম্যাচই দেখেছে মস্কো। নতুন জন্ম নেয়া যমজ শিশু সন্তানের মুখ দেখতে পর্তুগালে থাকায় এই ম্যাচে দলে ছিলেন না। শুরুর একাদশে ছিলেন না ফন্ট, ব্রুনো আলভেজ, কোরেসমারাও। নতুন এক দল নিয়েই মাঠে নামে পর্তুগাল। 

    ১৬ মিনিটে আরও একবার পেনাল্টি পেয়ে গিয়েছিল পর্তুগাল। এগিয়ে যেতে পারত তখনই। কিন্তু আন্দ্রে সিলিভার নেয়া শট নিজের ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন মেক্সিকো গোলরক্ষক গিলের্মো ওচোয়া। কর্নার থেকে অবশ্য গোল করার সুযোগ ছিল ন্যানির সামনে। তবে মাত্র ছয় গজ দূর থেকে করা ন্যানির হেড চলে যায় বারপোস্টের উপর দিয়ে। 

    বিরতির পর অবশ্য গোলের দেখা পায় ম্যাচ। ৫৫ মিনিটে হাভিয়ের হার্নান্দেজ বাম দিক থেকে ক্রস করেন বক্সের ভেতর। পর্তুগিজ গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিওকে ফাঁকি দিয়ে হার্নান্দেজের ক্রস সেন্টার ব্যাক নেটোর পায়ে লেগে প্রবেশ করে জালে। এবারের কনফেডারেশনস কাপে এটিই ছিল নেটোর প্রথম ম্যাচ। তবে দিনশেষে তাঁর দিনটা দুঃস্বপ্নে পরিণত হতে দেননি নেটোর ডিফেন্সিভ পার্টনার পেপে। 

    ম্যাচের শেষ দিকে যখন জয় প্রায় নিশ্চিত মেক্সিকোর তখনই তখনই ঘুরে দাঁড়ায় ইউরোজয়ীরা। বদলী খেলোয়াড় কারেসমার উড়ে আসা ক্রসে পা ছুঁয়ে পর্তুগালকে ম্যাচে ফেরান অধিনায়ক পেপে। এর আগে অবশ্য রুই প্যাট্রিসিওর বেশ কয়েকটি সেভ ম্যাচে টিকিয়ে রেখেছিল পর্তুগালকে। অতিরিক্ত সময়ের ৩০ মিনিটেও একবার মেক্সিকোরে  নিশ্চিত গোলের সুযোগ একাই ঠেকিয়ে দিয়েছেন প্যাট্রিসিও। 

    অতিরিক্ত সময়ের শেষ দিকে মেক্সিকোর পেনাল্টি আবেদনে সাড়া না দিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়েছেন রেফারি। মেক্সিকো কোচকে ডাগ আউটে বহিষ্কারও করেছেন তিনি। অবশ্য এর আগে দু'বার পকেট থেকে লাল কার্ড বের করতে হয়েছে  রেফারিকে। প্রথমে ১০৬ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন পর্তুগালের নেলসিনহো। এরপর প্রায় একই রকম অপরাধে লাল কার্ড দেখেন মেক্সিকো স্ট্রাইকার রাউল জিমেনেজ।         

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন