• বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা
  • " />

     

    'বাংলাদেশকে একচুলও ছাড় দেওয়া হবে না'

     

    দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে পুরো সফর। টেস্ট ও ওয়ানডেতে ধবলধোলাইয়ের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচেও পরাজয়ের মুখ দেখেছে বাংলাদেশ। সফরের শেষ ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা আনার সুযোগটা অবশ্য এখনও আছে তাঁদের সামনে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকা ব্যাটসম্যান ফারহান বেহারডিন বলছেন, শেষ টি-টোয়েন্টিতে সাকিবদের একচুলও ছাড় দিতে চান না তাঁরা।

    আগের ম্যাচে ১৭ বলে ৩৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছিলেন। বেহারডিন বলছেন, টেস্ট ও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতেও বাংলাদেশকে ধবলধোলাই হতে দেখতে চান, “আমরা সব ম্যাচেই জয়ের জন্য খেলি। আমরা শেষ ম্যাচেও জিততে চাই, বাংলাদেশকে বিন্দুমাত্র ছাড় দিতে রাজি নই। ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মৌসুমটা জয়ের মাধ্যমেই শেষ করতে চাই।”

    নতুন কোচ ওটিস গিবসনের অধীনে দল দিন দিন আর শক্তিশালী হচ্ছে বলেই বিশ্বাস বেহারডিনের, “আমাদের নতুন কোচ দলে নতুন নতুন কৌশল নিয়ে এসেছেন। ব্যাটিং কিংবা বোলিং, কিছুতেই এখন ‘অসম্ভব’ বলে কিছু নেই, সবখানেই আকাশছোঁয়া লক্ষ্য। শেষ ম্যাচেও তরুণদের সুযোগ দেওয়া হবে। আগের ম্যাচের মতো এবারও তাঁরা নিজেদের প্রতিভা তুলে ধরার সুযোগ পাবে।”

    বাংলাদেশের প্রধান অস্ত্র হবেন স্পিনাররা, এটা ভালোমতোই জানেন বেহারডিন। তাই প্রস্তুতিটাও সেভাবেই নিচ্ছেন, “আগের ম্যাচে প্রথম ১৩ ওভারের ৯ ওভারই স্পিনাররা করেছিল। ব্যাটিং কোচ ও স্পিন কোচের সাথে আমি এই ব্যাপারে কাজ করছি। টপ অর্ডারে আমাদের বেশ কিছু অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান আছে। বাংলাদেশ যেমন বোলিংই করুক, আমরা সেটাকে সামলে নিতে পারব।”

    আজ সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটে সিরিজের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন