• বিশ্বকাপ বাছাই
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    বাঁচামরার ম্যাচে আশা হারাচ্ছেন না বুফন

     

    হারলে তো বটেই, ড্র হলেই শেষ হয়ে যাবে ইতালির বিশ্বকাপ স্বপ্ন। প্লে-অফের প্রথম লেগে সুইডেনের কাছে ১-০ গোলে হেরে খাদের কিনারায় পৌঁছে গেছে জিয়ানলুইজি বুফনের দল। ঘরের মাঠে দ্বিতীয় লেগের বাঁচামরার লড়াইয়ের আগে বুফন বলছেন, এখনো আশা শেষ হয়নি ইতালির।

     

    বাছাইপর্বে একই গ্রুপে পড়েছিল ইতালি, স্পেন। শেষ পর্যন্ত গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাশিয়ার টিকেট পেয়েছে সার্জিও রামোসের দল। গ্রুপের দ্বিতীয় হয়ে সুইডেনের সাথে প্লে-অফ খেলেই নিজেদের ভাগ্য নির্ধারণ করতে হচ্ছে আজ্জুরিদের। বিশ্বকাপে পৌঁছানোর মিশনে শুরুতেই অবশ্য হোঁচট খেতে হয়েছে প্রতিপক্ষের মাঠে।

     

    দ্বিতীয় লেগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দলের সদস্যদের আত্মবিশ্বাস হারাতে বারণ করলেন বুফন, “আমরা জানি প্রথম লেগে জয় আসেনি। কিন্তু ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য আরও ৯০ মিনিট আছে। বিশ্বকাপে যেতে হলে মাথা ঠাণ্ডা রেখেই খেলতে হবে। বেশি ভাবলেই বিপদ। মাঠে আত্মবিশ্বাস ধরে না রাখলে আবারো পরাজয়ই দেখতে হবে।”

     

    কঠিন এই লড়াইয়ে দর্শককে নিজেদের পাশে চান বুফন, “আমরা মাঠে নিজেদের সেরাটা দেবো। পাশাপাশি দর্শককেও আমাদের পাশে থাকতে হবে। তাঁদের থেকে ইতিবাচক ব্যবহার আশা করছি। জুভেন্টাস, ইন্টার মিলার কিংবা এসি মিলান না, সবাই ইতালির সমর্থক হয়েই আসবেন। ক্লাবের সমর্থক পরিচয়টা ঝেড়ে ফেললেই খুশি হবো।”

     

    পা হড়কালেই ৬০ বছর পর বিশ্বকাপে দর্শক হয়ে থাকতে হবে। বুফন মানছেন, এটা তাঁর ক্যারিয়ারের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ, “এই ম্যাচ ইতালির ফুটবল দল ও ইতিহাসের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমার ক্যারিয়ারে এরকম বেশ কিছু মুহূর্ত এসেছে। কিছুর ফলাফল আমার পক্ষে গেছে, কিছু যায়নি। তবে ফলাফল যাই হোক না কেনও ইতালির ফুটবলের সাথে আমার সম্পর্ক আজীবন একইরকম থাকবে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন