bracket bracket
bracket bracket
  • ফুটবল

চোখের জলেই অবসর নিলেন বুফন

 

 

কয়েক মাস আগেই জানিয়েছিলেন, ২০১৮ বিশ্বকাপ খেলেই জাতীয় দলকে বিদায় জানাবেন। কিন্তু বিধিবাম, বিশ্বকাপের মঞ্চ থেকে বিদায়টা নেওয়ার সৌভাগ্য হলো না জিয়ানলুইজি বুফনের। সুইডেনের সাথে প্লে-অফের দ্বিতীয় লেগে ড্র করে রাশিয়া যাওয়া হচ্ছে না চারবারের বিশ্বকাপজয়ী ইতালির। গত রাতেই বুফন জানিয়েছেন, ইতালির হয়ে শেষ ম্যাচটা খেলে ফেলেছেন তিনি।

 

 

 

প্রথম লেগের পরাজয়ের পর ঘরের মাঠে জয়ের বিকল্প ছিল না। দ্বিতীয় লেগ গোলশূন্যভাবে শেষ হওয়ায় রাজ্যের হতাশা নিয়েই মাঠ ছেড়েছে আজ্জুরিরা। বুফন বলছেন, ইতালির এমন বিদায় দেশের ফুটবলের জন্য সুখকর নয়, “আমি খুব বেশি হতাশ। নিজের জন্য না, দেশের ফুটবলের জন্য। বিশ্বকাপে যাওয়াটা ইতালির ফুটবলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এত কাছে গিয়েও পারলাম না আমরা।এটাই আমার একমাত্র আফসোস।”

 

ক্যারিয়ারের শেষটা এরকম হবে, মানতে পারছেন না বুফন, “সবচেয়ে কষ্টের ব্যাপার হচ্ছে, আমার শেষ ম্যাচে ইতালি বিশ্বকাপে যেতে ব্যর্থ হলো। তবে আমি এখনন দেশের ফুটবল নিয়ে আশাবাদী। আমাদের সামর্থ্য, গর্ব, আত্মবিশ্বাস সবই আছে, খারাপ সময় থেকেও আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। আমি এমন একটা ইতালি দল থেকে বিদায় নিচ্ছি যারা জবাব দিতে জানে।”

 

প্রায় দুই দশকের ক্যারিয়ারে ইতালির জার্সি গায়ে খেলেছেন ১৭৫ ম্যাচ। ২০০৬ সালে তাঁর দুর্দান্ত পারফম্যান্সে বিশ্বকাপ ঘরে তোলে আজ্জুরিরা। ২০১৮ বিশ্বকাপে যেতে পারলে রেকর্ড ষষ্ঠবার বিশ্বকাপ খেলতেন বুফন।

 

 

 

এদিকে বুফনের বিদায়ের রাতে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন ইতালির ড্যানিয়েল ডি রসি ও আন্দ্রে বারজাগলিও। বুফনের মতো ডি রসিও বলছেন, ঘুরে দাঁড়াবে ইতালি, “আমি মনে করি না ১৮০ মিনিটের পর এরকম বিদায় আমাদের প্রাপ্য। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আবারো ইতালিকে তাঁদের হারানো গৌরব ফিরিয়ে দেবে। আগেও আমরা খারাপ পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছি।”

 

শেষ বাঁশি বাজার পর কয়েকবার আকাশের দিকে তাকালেন। ভেজা চোখে সতীর্থদের সান্ত্বনা দিলেন। চোখের জলেই মাঠ ছাড়লেন বুফন, শেষ হলো ফুটবলের এক বর্ণিল অধ্যায়ের।