• এশিয়া কাপ ২০১৮
  • " />

     

    • এশিয়া কাপ ২০১৮

    জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগেই সেরে উঠবেন মাশরাফি?

    ভারতের সঙ্গে এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচেই ব্যথা পেয়েছিলেন আঙুলে। সেমিফাইনালে আবার চোট লাগে হাতে, তখনই বুঝতে পেরেছিলেন ডান হাতের আঙুলে কোথাও ফেটে যেতে পারে। তবে ফাইনালে সেই চোট নিয়েই খেলেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। দেশে ফিরে চিকিৎসা নিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক, খুব গুরুতর নয় চোট। তবে সবকিছু ঠিক থাকলে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে প্রথম ওয়ানডেতে থেকেই খেলার কথা তাঁর।

    মাশরাফির চোট পাওয়ার পরেই বোঝা গিয়েছিল, আঙুলের কোথাও চিড় ধরতে পারে। শেষ পর্যন্ত তেমন কিছু হয়নি, তবে সব মিলে আরও সপ্তাহ দুয়েক লাগার কথা তাঁর। ২১ অক্টোবর থেকে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজ, তার আগেই ফিট হয়ে যাওয়ার কথা মাশরাফির। আজ মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ চৌধুরী নিশ্চিত করেছেন, ‘মাশরাফির হাতের রিঙ ফিঙ্গার ও লিটল ফিঙ্গার এই দুটো আঙুলে আঘাত ছিল। এরমধ্যে ছোট আঙুলের আঘাতটাই বেশি গুরুতর। ওখানে কিছুটা স্ট্রেইন আছে, কিন্তু হাড়ে ইনভলমেন্ট আছে। সব মিলিয়ে এটা সারতে তিন সপ্তাহের মতো সময় লাগে। এরমধ্যে কিছু সময় চলে গেছে। আমরা আশা করছি সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে ও খেলায় ফিরে আসতে পারে।’

    খেলার সময় উরুতেও একটা চোট লেগেছিল মাশরাফির। নিজেই পরে বললেন, গোটার মতো হয়ে গেছে জায়গাটায়। দেবাশীষ চৌধুরী এ নিয়ে অবশ্য এখনই পরিষ্কার করে কিছু বললেন না, ‘এছাড়াও ওর একটা থাই ইনজুরি আছে। সেটাও আমরা দেখছি, এরমধ্যে স্ক্যান করা হবে। কাল, পরশুর মধ্যে আমরা নিশ্চিত হতে পারব থাই ইনজুরি কতটুকু মারাত্মক।’

    ওদিকে তামিম ইকবালও হাতের হাড় ফেটে যাওয়ার পর সেরে ওঠার প্রক্রিয়ায় আছেন। ডা. দেবাশীষ জানালেন, ২০-২৫ তারিখের দিকে তামিমকে আরেকবার পরীক্ষা করে অনুশীলনে কবে ফিরতে পারবেন, সেটা বলতে পারবেন। এর মধ্যেই অবশ্য জিম করা শুরু করেছেন তামিম। তারপরও জিম্বাবুয়ে সিরিজে তাঁর খেলার সম্ভাবনা খুবই কম। বড়জোর দ্বিতীয় টেস্ট থেকে খেলতে পারবেন বলে জানা গেছে।

    চোট আছে মুশফিকুর রহিমেরও। পাঁজরে চোট নিয়েই খেলেছেন এশিয়া কাপ। ডা দেবাশীষ বললে, এই চোট সারতে এক মাস সময় লাগতে পারে, 'মুশফিকের রিভ ট্রমা আছে। রিভ ফ্র্যাকচার আছে। যেকোন ফ্র্যাকচার সারতে চার থেকে ছয় সপ্তাহ লেগে যেতে পারে। কিন্তু রিভের ক্ষেত্রে সময় বেশি নেয়। কারণ এটা সারাক্ষণ মুভমেন্টের উপর থাকে। এই ধরনের রিভ ইনজুরি অন্যান্য ইনজুরির চাইতে সপ্তাহ খানেক বেশি সময় লাগতে পারে। ও রিভ ট্রমা নিয়েও  অনেকক্ষন ব্যাট করেছে, ভাল করেছে। যথেষ্ট পেইনের মধ্যে থাকলেও অ ম্যানেজ করেছে। কাজেই এখন বিশ্রামটা দরকার। আমরা সপ্তাহখানেক পর আবার এসেস করব।'

    তার মানে জিম্বাবুয়ে সিরিজে সাকিব-তামিম-মুশফিককে ছাড়াই খেলবে বাংলাদেশ দল?