• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    • ক্রিকেট, অন্যান্য

    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে বাদ জিম্বাবুয়ে

    আইসিসির সদস্যপদ স্থগিত হওয়ার পর থেকে এই ব্যাপারটা নিয়ে সবচেয়ে বেশি দুশ্চিন্তায় ছিল জিম্বাবুয়ে। শেষ পর্যন্ত তাদের ভয়টাই সত্যি হলো। আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেলতে পারছে না জিম্বাবুয়ে। ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়াতে হতে যাওয়া বিশ্বকাপের জন্য খেলা বাছাইপর্বে জিম্বাবুয়ের পরিবর্তে খেলবে নাইজেরিয়া। শুধু পুরুষ নয়, নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকেও বাদ দেওয়া হয়েছে জিম্বাবুয়েকে।

    গত মাসে বোর্ডের ওপর রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনে জিম্বাবুয়ের আইসিসির সদস্যপদ স্থগিত করা হয়। এতে সব ধরনের আইসিসি টুর্নামেন্টে তাদের খেলা অনিশ্চয়তার মাঝে পড়ে। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা আশা করছিলেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের আগেই কেটে যাবে সংকট। 

    শেষ পর্যন্ত সেটা হচ্ছে না। জিম্বাবুয়ের পরিবর্তে বাছাইপর্ব খেলবে নাইজেরিয়া। আফ্রিকান বাছাইপর্বে নাইজেরিয়া হয়েছিল তৃতীয়। তাদের সাথে বাছাইপর্ব খেলবে কেনিয়া ও নামিবিয়া। বাছাইপর্বের প্রথম ধাপে এই আফ্রিকান দেশগুলোর সাথে অংশ নেবে সংযুক্ত আরব আমিরাত, হংকং, আয়ারল্যান্ড, জার্সি, নেদারল্যান্ডস, ওমান, পাপুয়া নিউগিনি, স্কটল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ও আমেরিকা অঞ্চল থেকে নির্বাচিত হওয়া দুই দল। তাদের মাঝ থেকে ছয়টি দল খেলবে বাছাইপর্বের দ্বিতীয় রাউন্ড। সেখানে তাদের সাথে যোগ দেবে শ্রীলংকা ও বাংলাদেশ। এরপর এই আট দলের মাঝে চারটি দল যাবে মূল পর্বে। বাছাইপর্বটি অনুষ্ঠিত হবে আরব আমিরাতে এই বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে। 

    ছেলেদের মতো মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার আশাও শেষ হয়ে গেলো জিম্বাবুয়ের। তাদের জায়গায় বাছাইপর্ব খেলবে নামিবিয়া। এই মাসের শেষে শুরু হতে যাওয়া বাছাইপর্বে তাদের সাথে খেলবে স্কটল্যান্ড, বাংলাদেশ, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, পাপুয়া নিউগিনি, থাইল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র। এই দলগুলোর মাঝে দুইটি দল উঠবে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে।