• অ্যাশেজ ২০১৯
  • " />

     

    • অ্যাশেজ ২০১৯

    'পেইনের পর স্মিথই আবার অধিনায়ক হবে'

    যে কমিটি স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল, তার একজন সদস্য ছিলেন মার্ক টেলর। সানডে মর্নিং হেরাল্ডে লেখা এক কলামে সাবেক এই অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক বলছেন, বল টেম্পারিংয়ের কারণে অধিনায়কত্ব হারানো স্মিথ আবারও অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে পারেন। টেলরের বিশ্বাস, বর্তমান অধিনায়ক টিম পেইনের বিদায়ের পর অধিনায়কত্বের দায়িত্বটা আবার স্মিথের কাঁধেই আসবে। 

    গত বছরের মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের তৃতীয় টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত হয়েছিলেন স্মিথ-ওয়ার্নার-ব্যানক্রফটত্রয়ী। ওই ম্যাচের মাঝপথেই স্মিথের বদলে নেতৃত্ব দেওয়া শুরু করেন উইকেটকিপার পেইন। স্মিথের নিষেধাজ্ঞার সময় থেকে এখন পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের দায়িত্ব পেইনের কাঁধেই আছে। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেও আগামী বছরের এপ্রিল পর্যন্ত অধিনায়ক হতে পারবেন না স্মিথ। 

    টেলর মনে করেন, পেইনের পর আবার অধিনায়ক হবেন স্মিথ, ‘আমার বিশ্বাস স্মিথ আবার দলকে নেতৃত্ব দেবে। যে কমিটি তাকে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল, আমি সেটায় ছিলাম। পরেরবার যখন সে অধিনায়কত্ব পাবে, অবশ্যই আগের চেয়ে ভালো করবে। কারণ সে বল টেম্পারিংয়ের ঘটনায় বড় একটা শিক্ষা পেয়েছে।’ 

     

     

    এই বছরের শেষে পেইনের বয়স হবে ৩৫। এরই মাঝে তার অবসর নেওয়া নিয়েও কথা উঠেছে। পেইনের পর কে হবেন নতুন অধিনায়ক? টেলর বলছেন, নতুন করে অধিনায়ক খোজার দরকার নেই অস্ট্রেলিয়ার, ‘স্মিথ পরের এপ্রিলেই অধিনায়ক হবে কিনা, সেটা নিয়ে আমি ভাবছি না। এই ব্যাপারটা এত দ্রুত না হলেও হবে। পেইন কতদিন অধিনায়কত্ব করবে সেই ব্যাপারে আমি নিশ্চিত না, সেটা ছয় মাসও হতে পারে, দুই-তিন বছর। তবে যখনই সে সরে দাঁড়াবে, স্মিথই অধিনায়ক হবে।’