• বুন্দেসলিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ফুটবলকে বিদায় বললেন শোয়েনস্টাইগার

    জার্মানির হয়ে বাস্তিন শোয়েনস্টাইগার শেষবার খেলেছিলেন তিন বছর আগে। জাতীয় দলের পর এবার সব ধরনের ফুটবলকেই বিদায় বলার ঘোষণা দিলেন এই বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডার। মেজর সকার লিগে গত রবিবার অরলান্ডো সিটির বিপক্ষে ম্যাচের পর শোয়েনি জানিয়েছেন, পেশাদার ফুটবলে আর দেখা যাবে না তাঁকে। 

    ২০০৪ সালে জার্মানির জার্সি গায়ে প্রথমবারের মতো খেলতে নেমেছিলেন শোয়েনস্টাইগার। ১২ বছরে জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ১২১ ম্যাচ। ২০১৪ সালে জার্মানির হয়ে জিতেছেন বিশ্বকাপও। ক্লাব ফুটবলে বেশিরভাগ সময়ই কাটিয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখে, খেলেছেন ৫০০ ম্যাচ। এই ক্লাবের হয়ে আটটি লিগ শিরোপা ও একটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন তিনি। ক্যারিয়ারের শেষভাগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড হয়ে পাড়ি জমিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর সকার লিগে। 

    বিশ্বকাপ হাতে শোয়েনস্টাইগার

     

    নিজের বিদায়ের ঘোষণা দেওয়ার সময় ৩৫ বছর বয়সী শোয়েনস্টাইগার জানিয়েছেন, দীর্ঘ ক্যারিয়ারের কথা সবসময়ই হৃদয়ের মাঝে থাকতে তার, ‘ফুটবলকে বিদায় জানানোটা আমার জন্য খুবই আবেগের। তবে ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্য মুখিয়ে আছি। আমি সবসময়ই ফুটবলের সাথে থাকতে চাই। যারা এতদিন আমার পাশে ছিলেন সবাইকে ধন্যবাদ। সবাই আমার হৃদয়ের মাঝে থাকবেন।’ 

    জার্মানি কোচ জোয়াকিম লো বলছেন, শোয়েনস্টাইগার জার্মানির ইতিহাসের অন্যতম সেরা, ‘তিনি জার্মান ফুটবলের অন্যতম সেরাদের একজন। দারুণ ব্যক্তিত্বের একজন মানুষ, খুবই সৎ ও প্রাণবন্ত ফুটবলার।’

     

     

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন