• জাতীয় ক্রিকেট লিগ
  • " />

     

    সিলেটকে হারাতে দুই দিনও লাগল না চট্টগ্রামের

    সিলেট ১৬৩ এবং ১০৯

    চট্টগ্রাম ২২৯/৯  এবং ৪৫/১

    ফলঃ চট্টগ্রাম ৯ উইকেটে জয়ী


    বৃষ্টিতে প্রথম দুই দিন পন্ড হয়ে গিয়েছিল খেলা। জাতীয় লিগে সিলেট-চট্টগ্রামের ম্যাচে খেলা হলো মাত্র দুই দিন। সেটাই যথেষ্ট হলো চট্টগ্রামের জন্য, দুই দিনেই হারিয়ে দিল সিলেটকে।

    সিলেটকে ১৬৩ রানে অলআউট করে দেওয়ার পর তৃতীয় দিন শেষে ৭ উইকেটে ১৯১ রান তুলে ফেলেছিল চট্টগ্রাম। আজ ২২৯ রান তুলতে আরও ২ উইকেট হারিয়ে বসে, অলআউট হওয়ার আগে ঘোষণা করে দেয় ইনিংস। চট্টগ্রামের হয়ে পিনাক ঘোষ সেঞ্চুরি করেছিলেন আগেই, সিলেটের হয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী। সিলেটের সামনে হার বাঁচানোর চ্যালেঞ্জই ছিল তখন বেশি। কিন্তু সেটা করতে গিয়ে খাবি খেয়েছে শুরু থেকেই।

    দ্বিতীয় ইনিংসে ২৫ রান তুলতেই সিলেট হারিয়েছে ইমতিয়াজ হোসেনকে, প্রথম উইকেট তুলে নিয়েছেন মেহেদী হাসান রানা। এরপর তৌফিক খান, শাহানুর রহমান, জাকির হাসান- সিলেটের প্রথম ৫ উইকেটের চারটিই নিয়েছেন অনূর্ধ্ব ১৯ দলে একসময় খেলা বাঁহাতি পেসার মেহেদী রানা।

    তবে সিলেটের আসল ধসটা শুরু হয়েছে এরপর। ৪ উইকেটে ৮০ রান থেকে জাকিরের আউট দিয়ে শুরু। জাকের আলীকে আউট করেছেন মিনহাজুল আফ্রিদি। তবে সিলেটকে সবচেয়ে বড় ধাক্কাটা দিয়েছেন প্রথম ইনিংসে আলো ছড়ানো ইফরান হোসেন। অলক কাপালিই যা একটু খেলছিলেন, তিনি ইফরানের বলে ফিরেছেন ৩১ রান করে। আর ইমরান আলীকে আউট করে ৫ উইকেট পেয়েছেন মেহেদী রানা, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে  প্রথমবারের মতো। ১০৯ রানেই অলআউট হয়ে গেছে সিলেট, জয়ের জন্য চট্টগ্রাম পেয়েছে মাত্র ৪৪ রানের লক্ষ্য।

    সেটার জন্য বেশি সময় নেয়নি তারা, ৬.৪ ওভারেই ১ উইকেট হারিয়ে টপকে গেছে সেই রান। প্রথম দুই ম্যাচ ড্রয়ের পর এটি চট্টগ্রামের প্রথম জয়, আর সিলেটের তিন ম্যাচে দ্বিতীয় পরাজয়।