• বাংলাদেশের ভারত সফর
  • " />

     

    চাপে আছে ভারত, স্বীকার করলেন রোহিত

    রোহিত শর্মার জন্য অভিজ্ঞতাটা একদম অন্যরকম। দেশের মাটিতে ভারত গত সাড়ে তিন বছরে একটি মাত্র টি-টোয়েন্টি সিরিজ হেরেছে, সেটা এই বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। বিরাট কোহলি ছিলেন অধিনায়ক, তার আগে পরে অনেক দিন ভারত নিজেদের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারেনি। অথচ কাল রাজকোটে হেরে গেলে সেই তিক্ত অভিজ্ঞতাই হবে। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে এসেও রোহিত স্বীকার করলেন, পারফর্ম করার জন্য তাদের ওপর চাপ বাড়ছে।

    সাকিব-তামিমবিহীন বাংলাদেশ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে চমকেই দিয়েছে। সেদিন ভারতের ব্যাটিংটা ভালো হয়নি একদমই, তার চেয়েও বেশি ভুলে যাওয়ার মতো হয়েছে ফিল্ডিং। প্রশ্ন উঠেছে রোহিতের অধিনায়কত্ব নিয়েও। ভারত অধিনায়ক রাজকোটের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে অবশ্য কোনো নির্দিষ্ট বিভাগ নিয়ে পুরো দল নিয়েই ভাবছেন, ‘এই মুহূর্তে পারফর্ম করার জন্য একটা চাপ আমাদের ওপর তো আছেই, সেটা মানতেই হবে। এটা ব্যাটিং, বোলিং বা নির্দিষ্ট কোনো বিভাগের ওপর নয়। চাপ আছে পুরো দলের ওপরেই। আমরা যখন হেরেছি, শুধু বোলিং ইউনিট হিসেবে হারিনি। দল হিসেবেই হেরেছি।’

    সব বিভাগেই তাই উন্নতির সুযোগ দেখছেন রোহিত, ‘ব্যাটসম্যানদের ওদের কাজটা ঠিকমতো করতে হবে, বোলারদেরও গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট নিতে হবে। আলাদা করে কারও বা কোনো বিভাগের নাম আমি বলতে চাই না।’

    টেস্টে নিজেদের মাঠে ভারত যেরকম অদম্য, টি-টোয়েন্টিতে সেরকম নয়। এই বছর তো অস্ট্রেলিয়ার সাথে দেশের মাটিতে দুইটি ম্যাচেই হেরেছিল। রোহিত বললেন, এই সংস্করণে নতুনদের নিয়মিত সুযোগ দেওয়াটা একটা কারণ হতে পারে, ‘এই ফরম্যাটে আমরা অনেক নতুন ক্রিকেটারকে খেলাই। আর এই সিরিজে বেশ কিছু অভিজ্ঞ খেলোয়াড় নেই সেজন্য দলের আশেপাশে থাকা কিছু তরুণদের আমরা সুযোগ দিয়েছি। আর আপনাকে এটাও দেখতে হবে, এই ফরম্যাট থেকে আমরা বেশ কিছু খেলোয়াড় পেয়েছি যারা অন্য ফরম্যাটে এর মধ্যে জায়গা পাকা করে নিয়েছে। আমরা চাই, মূল দলের মতো আমাদের বেঞ্চও শক্তিশালী হোক।’

    রোহিত অবশ্য বলেছেন, সবকিছুর পরেও তাদের জয় ছাড়া বিকল্প নেই। আর বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই কাজটা তাদের করতেই হবে।