• অন্যান্য
  • " />

     

    খেলা নিয়ে যে বইগুলো হতে পারে আপনার গৃহবন্দি দিনের সঙ্গী

    হয়তো বই পড়ার অভ্যাসটা কমে গেছে, সেটা বাড়াতে চান আবার। কিংবা এ সময়ে খেলা নিয়ে বই খুঁজছেন পড়ার মতো। এ তালিকা হতে পারে এ সময়ে আপনার জন্য সহায়ক...।


    ইনভার্টিং দ্য পিরামিড
    জোনাথন উইলসন 

    বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ফুটবলের পিরামিড উলটে গেল কীভাবে? একটা সময় যে খেলায় ১১ জনে দুজন ডিফেন্ডার ছিল, ২-৪-৪ ফর্মেশন থেকে কীভাবে সেটা ৪-৪-২ হয়ে গেল? ফুটবলের ট্যাকটিকস নিয়ে যাদের আগ্রহ আছে, ফুটবল দর্শন নিয়ে যারা জানতে চান তাদের জন্য অবশ্যপাঠ্য। 

    প্রোভাইডেড ইউ ডন্ট কিস মি- টুয়েন্টি ইয়ারস উইথ ব্রায়ান ক্লাফ
    ডানকান হ্যামিল্টন 

    ‘ড্যামড ইউনাইটেড’ ছবিটা দেখলে ব্রায়ান ক্লাফকে নিয়ে ধারণা হয়ে যাওয়ার কথা। নটিংহাম ফরেস্টের এই কিংবদন্তি কোচ দুইবার এই ক্লাবকে নিয়ে জিতেছিলেন ইউরোপিয়ান কাপ, লিখেছিলেন রূপকথার এক অবিশ্বাস্য গল্প। ক্লাফের জীবনও সেরকম উত্থান পতনে ভরা, ব্রিটিশ ফুটবলের সম্ভবত সবচেয়ে রংদার চরিত্রগুলোর একজন তিনি। তাকে নিয়ে লেখা বই সেরকম চমক আর ঘটন অঘটনে ভরপুর। পড়ে নেওয়া যেতে পারে ক্লাফকে নিয়ে আরেকটি বই ড্যামড ইউনাইটেডও। 


    খেলা নিয়ে যে ২৫টি সিনেমা দেখতে পারেন


    দ্য মিক্সার
    মাইকেল কক্স 

    আধুনিক ফুটবল ট্যাকটিকসের আরেকটি দারুণ বই। মাইকেল কক্স এই সময়ের সেরা ফুটবল লিখিয়েদের একজন, ফুটবলের কৌশল নিয়ে তার মতো সহজ করে বলতে পারেন খুব কমই। এই বইটি প্রিমিয়ার লিগের কৌশলগত বিবর্তনের একটা আকরখনিই বলা চলে। 


    দ্য বল ইজ রাউন্ড
    ডেভিড গোল্ডব্লাট 

    একটি চামড়ার গোলক থেকে কীভাবে আজকের ফুটবল এলো, তার একটা বিস্তারিত চিত্র পাওয়া যাবে এই বইতে। ফুটবল যে শুধু একটা খেলা নয়, সব ধর্ম, ভাষা ছাড়িয়ে এর গন্ডি যে কতটা বড়, এর রাজনৈতিক ও সমাজতাত্ত্বিক প্রভাব কতটা সুদূরপ্রসারী, সেটার একটা আঁচ এই বইতে পাওয়া যাবে। 

    ফুতেবল, দ্য ব্রাজিলিয়ান ওয়ে অব লাইফ
    অ্যালেক্স বেয়স 

    ফুটবল যদি একটা শিল্প হয়, তাহলে ব্রাজিলিয়ানরা সম্ভবত তার সবচেয়ে বড় শিল্পী। ব্রাজিলে ফুটবল মানে কখনো কবিতা, কখনো ট্র্যাজেডি, কখনো ছোটগল্প। আমাজনের গহীন জঙ্গল থেকে রিও আর সাও পাওলোর ফাভেলাতে ফুটবল কীভাবে ছড়িয়ে আছে, সেই দুর্দান্ত গল্পটা বলার চেষ্টা করা হয়েছে এই বইতে। 

     



    অ্যাঞ্জেলস উইথ ডার্টি ফেসেসঃ হিস্টরি অব আর্জেন্টাইন ফুটবল
    জোনাথন উইলসন

    ব্রিটিশদের হাত ধরে আর্জেন্টিনায় এসেছিল ফুটবল। এরপর লা প্লাতা নদীতে কত জল গড়িয়েছে, আর আর্জেন্টিনার নামের দেশে এসেছে মারিও কেম্পেস, ডিয়েগো ম্যারাডোনা, লিওনেল মেসিদের মতো মহাতারকারা। আর্জেন্টিনার ফুটবলের অন্ধিসন্ধির খোঁজ পাওয়া যাবে এই বইতে। 


    সকার ইন সান অ্যান্ড শ্যাডো
    এদুয়ার্দো গ্যালিয়ানি 

    ‘কিছু মানুষ বলে ফুটবল হচ্ছে জীবন-মৃত্যুর মতো। আসলে ফুটবল তার চেয়েও বেশি’। কেন ফুটবল বিশ্বব্রহ্মান্ডের সবচেয়ে বড় নেশা, গ্যালিয়ানি সাংবাদিক আর কবির দ্বৈত সত্তা থেকে বলেছেন শ্বাসরোধ করা সেই গল্প। 

    ফিভার পিচ
    নিক হর্নবি 

    ফুটবল নিয়ে সবচেয়ে বিখ্যাত বইগুলোর একটি। একজন আর্সেনাল সমর্থকের সারাজীবনের আনন্দ, অপেক্ষা, হতাশা আর প্রাপ্তির এই গল্প উঠে এসেছে আত্মজৈবনিক এই বইতে। 


    পেলে, দ্য বায়োগ্রাফি

    সম্ভবত ফুটবলের সবচেয়ে বিখ্যাত আত্মজীবনী। গল্পটা কাকে নিয়ে, সেটা বলার কিছু নেই। পেলের খেলা আপনি দেখেননি, তবে এই এই পড়লে সেই আক্ষেপ একটু ঘুঁচবে। 



    অ্যালেক্স ফার্গুসন, মাই অটোবায়োগ্রাফি

    ‘ফুটবল, ব্লাডি হেল’। ইংলিশ ফুটবল যারা দেখেছেন, ডাগআউইতে চুইংগাম চিবুতে থাকা লালমুখো বুড়ো লোকটার সঙ্গে কেটেছে জীবনের অনেকটা সময়। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে কীভাবে মহীরুহ হয়েছেন, স্যার অ্যালেক্সের এই গল্প ইংলিশ ফুটবলের একটা প্রামাণ্য দলিলও।


    ব্রিলিয়ান্ট অরেঞ্জ, দ্য নিউরোটিক জিনিয়াস অব ফুটবল
    ডেভিড উইনার

    ফুটবল খেলেছে অনেকেই, কিন্তু ডাচদের মতো করে ফুটবলের ভাষা বোধ হয় আর কেউ পড়তে পারেনি। রাইনাস মিশেলস থেকে ইয়োহান ক্রুইফ, মার্কো ফন বাস্তেন থেকে রুদ খুলিত- আর সঙ্গে টোটাল ফুটবল; ফুটবলের ভক্ত হয়ে থাকলে অবশ্যপাঠ্য।


    ইউটিউব লুপ : 'ফুটবল, ব্লাডি হেল!', 'দ্য বাংলাদেশ টাইগারস হ্যাভ নকড দ্য ইংলিশ লায়নস...'। ইউটিউবে যে ভিডিও আমরা দেখি বারবার। 


    সকারোনমিক্স
    সাইমন কুপার 

    ইংল্যান্ড কেন হারে? স্কটল্যান্ড কেন পারে না? আমেরিকা কেন ফুটবলে বড় হয়নি? জার্মানি কেন যান্ত্রিক কিন্তু কার্যকরী ফুটবল খেলে? ফুটবলের সঙ্গে অর্থনীতি, সমাজতত্ত্ব, ইতিহাস যে বইতে মিলে মিশে একাকার। 

    আই থিংক দেয়ারফোর আই প্লে
    আন্দ্রেয়া পিরলো 

    ইতালির সবচেয়ে অ-ইতালিয়ান ফুটবলারের দুর্দান্ত আত্মজীবনী। শুধু গতবাঁধা গল্প নয়, একজন ফুটবলারের আটপৌরে জীবনের খোঁজও পাওয়া যাবে এই বইতে। 

    দ্য হ্যান্ড অব গড, লাইফ অব ডিয়েগো ম্যারাডোনা
    জিমি বার্নস 

    অনেকের কাছে ম্যারাডোনা মানেই ফুটবল। তার আত্মজীবনী যে কোনো ফুটবলভক্তের জন্যই অবশ্যপাঠ্য।



    বিয়ন্ড আ বাউন্ডারি
    সিএলআর জেমস 


    সম্ভবত ক্রিকেট নিয়ে লেখা সবচেয়ে বিখ্যাত বই। ক্রিকেটের সাথে ঔপনিবেশিকতা, সঙ্গে বর্ণবাদ- ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান জেমসের দীর্ঘ ক্রিকেট লিখিয়ে জীবনের পুরো নির্যাসটা পাওয়া যাবে এই বইতে।


    পান্ডিটস ফ্রম পাকিস্তান
    রাহুল ভট্টাচার্য 

    ২০০৪ সালে ভারতের সেই ঐতিহাসিক ও দীর্ঘ পাকিস্তান সফরে গিয়েছিলেন লেখক। প্রায় দুই মাসের কাছাকাছি সময়ে পুরোটা সময় ঘুরে বেরিয়েছেন পাকিস্তানের পথে প্রান্তরে, ভেন্যুতে ভেন্যুতে। ক্রিকেটের পাশাপাশি দারুণ একটা ভ্রমণকাহিনিও।


    আনকোয়ায়েট ওয়ানস : আ হিস্টোরি অফ পাকিস্তান ক্রিকেট
    ওসমান সামিউদ্দিন 

    লাহোরের ইসলামিয়া কলেজ থেকে আজকের গাদ্দাফি স্টেডিয়াম, সঙ্গে করাচি, পেশাওয়ার, রাওয়ালপিন্ডি। আবদুল হাফিজ কারদার থেকে ইমরান, খান, ওয়াসিম আকরাম- পাকিস্তান ক্রিকেটের পুরো ক্যানভাস পাওয়া যাবে এই পুরস্কারজয়ী বইতে।


    বাংলাদেশের যে ৫ ম্যাচ হতে পারতো অন্যরকম, হয়েছে শুধুই আক্ষেপের


    আউট অব মাই কমফোর্ট জোন
    স্টিভ ওয়াহ 

    স্টিভ ওয়াহ শুধু একজন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক বা একজন গ্রেট ব্যাটসম্যান নন, তার চেয়েও বেশি কিছু। ব্যাগি গ্রিনকে তার মতো করে ধারণ করেছেন কম। আত্মজীবনীতে স বাই ঠিক কথা বলে না। এই বইয়ের নামটাই বলে দিচ্ছে, তা একটু ব্যতিক্রম। 


    আইডলস
    সুনীল গাভাস্কার 

    একজন কিংবদন্তিদের মুখে তার প্রিয় ক্রিকেট হিরোদের গল্প পড়তে কেমন লাগবে? এই বই নিয়ে এই লাইনই যথেষ্ট। 


    কামিং ব্যাক টু মি
    মার্কাস ট্রেসকোথিক 

    ট্রেসকোথিক হয়তো এমন কিংবদন্তি কেউ নন, তার আত্মজীবনী নিয়ে আলাদা করে চাঞ্চল্যেরও কিছু নেই। তবে একজন ক্রিকেটার কীভাবে মানসিক চাপে একটু একটু ভেঙে পড়েছেন, আধুনিক ক্রিকেট কীভাবে একজন খেলোয়াড়কে তিলে তিলে শেষ করে দিয়েছে, বিষণ্ণতা কীভাবে গ্রাস করেছে- ট্রেসকোথিকের সেই মর্মস্পর্শী গল্প জানার জন্য এই বই অবশ্যপাঠ্য।

    চায়নাম্যান
    শিহান করুনাতিলাকা 

    একজন শ্রীলংকান প্রবীণ ক্রিকেট লেখক খোঁজ করতে শুরু করলেন একজন বিস্মৃত ক্রিকেটারের। ক্রিকেট নিয়ে লেখা সম্ভবত সেরা ফিকশন এই বই, সঙ্গে বোনাস হিসেবে পাবেন শ্রীলংকার ক্রিকেটের অনেক অজানা গল্প।


    লালবল লারউড
    শংকরীপ্রসাদ বসু 

    হ্যারল্ড লারউডের নাম বললেই মনে পড়ে সেই বডিলাইন সিরিজের কথা। ইংল্যান্ডের খনি থেকে কীভাবে ক্রিকেট পুরাণে ঢুকে গিয়েছেন, কীভাবে অ্যাশেজে তার নাম ভুল কারণে মনে রেখেছেন- এই বইতে তা জানা যাবে। খেলা নিয়ে বাংলা ভাষার সেরা বইগুলোর একটি।


    দেশি গান, বিলিতি খেলা
    কুমারপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায় 

    ধ্রুপদী সংগীতের সঙ্গে ক্রিকেটের যোগ আসলে কেমন? সেই গল্পটা বলার চেষ্টা করা হয়েছে এই দুর্দান্ত বইতে।


    দশটি কিশোর উপন্যাস
    মতি নন্দি

    ননিদা নট আউট, স্ট্রাইকার, স্টপার, দলবদলের আগে-সহ দশটি উপন্যাস পাবেন এই সমগ্রে। সবগুলিই খেলার। মতি নন্দী বাংলা ভাষায় খেলার ফিকশনে এক অনন্য নাম, এ উপন্যাসগুলি প্রমাণ করে সেটিই। 

     



    রাফা, মাই স্টোরি
    রাফায়েল নাদাল

    স্পেনের মায়োর্কার সৈকত থেকে কীভাবে ডানপিটে ছেলেটা হয়ে উঠেছে লাল মাটির রাজা? নাদালের এই আত্মজীবনী শুধু তার আত্মজীবনী নয়, তার সংগ্রামের, তার দর্শনের, তার সাদামাটা জীবনাচরণের একটা দলিলও।

    ওপেন
    আন্দ্রে আগাসি 
    সম্ভবত টেনিসের সবচেয়ে বর্ণাঢ়্য চরিত্রগুলোর একটি আগাসী। প্রতিভাবান কিন্তু বিপথগামীর ট্যাগ থেকে কীভাবে কোর্টে আর ব্যক্তিগত জীবনে থিতু হয়েছেন, সেটা জানার আগ্রহ মেটাবে দারুণ এই বই।

    ফেদেরার
    রজার ফেদেরার
    সব কিংবদন্তিদের জীবনে একটা না বলা গল্প থাকে। ফেদেরারের খেলা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই, তার বেড়ে ওঠার সেই না বলা গল্পটা বলেছেন এই বইতে।

    আলী, এ লাইফ
    জোনাথন ইগ 

    এক জীবনে মোহাম্মদ আলী যা দেখেছেন, খুব কম খেলোয়াড়েরই সেই অভিজ্ঞতা হয়েছে। মানুষ আলী আর দেবতা আলীর যুগলবন্দিতে ভাস্বর এই বই।

    দ্য মাম্বা মেন্টালিটি
    কোবি ব্রায়ান্ট 
    বাস্কেটবল নিয়ে হয়তো আপনার জানাশোনা নেই, তবে কদিন আগেই অকালপ্রয়াত কোবি ব্রায়ান্টের মৃত্যু আপনাকে নাড়া না দিয়ে হয়তো পারেনি। ব্রায়ান্টের এই বইয়ের পরতে পরতে মিশে আছে তার স্মৃতি।