• ফর্মুলা ওয়ান
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ভেটেলের সাথে ফেরারির বিচ্ছেদ : কীভাবে এবং কেন?

    ফর্মুলা ওয়ান জগতের খোঁজ খবর যারা জানেন, তারা হয়তো এর মাঝে জেনেও গেছেন যে টিম ফেরারি সেবাশ্চিয়ান ‘সেব’ ভেটেলের সাথে ২০২০ এর পর আর চুক্তি নবায়ন করছে না। ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত ভেটেলের সাথে ফেরারির চুক্তি ছিল। নতুন মৌসুমে ভেটেলের জায়গা নিচ্ছেন ম্যাকলারেনের কার্লোস সাইঞ্জ।

    ফেরারিতে ফ্রেঞ্চ তরুণ শার্ল লেক্লেয়ারের সঙ্গী কে হবেন তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছিল বেশ আগে থেকেই। এমনকি ফেরারি আর ভেটেলের সম্পর্কচ্ছেদের ঘোষণা আসারও বেশ আগে থেকেই। ফেরারি মার্সিডিজ থেকে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন লুইস হ্যামিল্টনকে দলে টানতে পারে, এমন রসালো গুজবও ভেসে বেড়াচ্ছিল একটা সময়ে। তবে চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভেটেলের জায়গায় ম্যাকলারেনের মেক্সিকান তরুণ কার্লোস সাইঞ্জ এবং রেনোঁর অস্ট্রেলিয়ান তারকা ড্যানিয়েল রিকার্ডোর নামই বেশি শোনা যাচ্ছিল।

    ভেটেলের জায়গায় কে?
    ভক্ত ও বিশ্লেষকেরাও অবশ্য রিকার্ডোকেই দৌড়ে এগিয়ে রাখছিলেন। এর মূল কারণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রিকার্ডোর ব্যাপক জনপ্রিয়তা। ভেটেলের মত একজন কিংবদন্তী তারকাকে আরেকজন উঠতি তারকা দিয়ে ফেরারি বদল করতে চাইবে সেটা অবশ্য অনুমিতই।

    কার্লোস সাইঞ্জের ফেরারিতে যোগ দেওয়ার ঘোষণায় ধারণা করা হচ্ছে ম্যাকলারেন হয়তো রিকার্ডোকে তাদের দলে ভেড়াবে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এ বছরে কোন রেসই ট্র্যাকে গড়ায়নি। ইতালির কোম্পানি ফেরারি বেশ কয়েক গুণ হ্রাস করেছে ড্রাইভারদের বেতন। তবে ভেটেল জানিয়েছেন, ফেরারি সাথে বিচ্ছেদের পেছনে অর্থকড়ির কোন সম্পর্ক নেই। লকডাউনে থেকে তিনি অনেক চিন্তাভাবনার সময় পেয়েছেন এবং পুরো ব্যাপারটাই ঘটেছে দুই পক্ষের সম্মতিতে।

    ইন্টারলাগোসে পেছন থেকে এসে লেক্লেয়ারকে ধাক্কা দিলেন ভেটেল


    ভেটেলের উথান- ভেটেলের পতন
    গত বছরের ফর্মুলা ওয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ যারা অনুসরণ করেছেন তাদের জন্য ভেটেলের বিদায়টা খুব বিস্ময়কর ঘটনাও হওয়ার কথা নয়। তবে ভেটেলের উত্থানের গল্পটা যেমন আশ্চর্যজনক তেমনি তাঁর পতনটাও খুবই বিস্ময়কর এবং দুঃখজনক।

    জার্মান তরুণ ভেটেলের ফর্মুলা ওয়ানে উথানটা ছিল ধুমকেতুর মত। মাত্র ১৯ বছর বয়সে ভেটেল প্রথম ফর্মুলা ওয়ানে বদলি ড্রাইভার হিসেবে রেসিং ট্র্যাকে পা রাখেন। ২০০৬ চ্যাম্পিয়নশিপে বিএমডব্লিউ এর রবার্ট কুবিকা চোট পেলে যুক্তরাষ্ট্রের গ্রাঁ প্রিতে সুযোগ পান ভেটেল। তাঁর প্রতিভা দেখে ঐ মৌসুমেই টরো রসো বদলি ড্রাইভার হিসেবে ভেটেলের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন করে।

    ২০০৮ এ প্রথম টরো রসোর হয়ে ট্র্যাকে নামেন ‘সেব’। মাত্র ২১ বছর বয়স ইতালিয়ান গ্রাঁ প্রি জিতে ফর্মুলা ওয়ানে  সবচেয়ে কম বয়সী বিজয়ীর রেকর্ডটা নিজের করে নেন। তাঁর এই রেকর্ড ভাঙতে পরে সময় লেগেছিল  ৮ বছর। ২০১৬ তে ১৯ বছর বয়সী ডাচ তরুণ ম্যাক্স ভেরস্টাপেন ভেটেলেরই পুরনো টিম টরো রসোর হয়ে রাশিয়ান গ্রাঁ প্রি জিতে রেকর্ডটা নিজের করে নেন।

    তবে ২০০৮ এ ভেটেলের জয়যাত্রার কেবল শুরু তখন। তাঁর প্রতিভা টের পেয়ে তাঁকে ২০০৯ এ রেড বুল টিমে প্রমোশন দেওয়া হয়। সেবার জেনসন বাটনের থেকে ১১ পয়েন্ট পিছে থেকে রানার্স আপ হন ভেটেল। এরপরের গল্প কেবল ভেটেলের উত্থানের। ২০১০ ফর্মুলা ওয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ফেরারির কিংবদন্তী রেসার ফার্নান্দো আলোনসোকে হারিয়ে সবচেয়ে কম বয়সী ফর্মুলা ওয়ান চ্যাম্পিয়ন হন ভেটেল। এরপর ২০১১, ২০১২, ২০১৩ তেও একই ফলাফল। মাত্র ২৫ বছর বয়সে টানা চারবার ফর্মুলা ওয়ান জিতে নিয়ে একরকম আলোন্সোর ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দেন এই জার্মান তরুণ।

    ২০১৫ তে ফেরারিতে কিমি রাইকোনেনের পার্টনার হিসেবে যোগ দেন ভেটেল। আলোন্সো চলে যাওয়ার পর থেকেই ফেরারির বেশ নাজুক অবস্থা তখন। ভেটেল আসার পর আবার ফেরারি মার্সিডিজ এবং মার্সিডিজের উঠতি তারকা হ্যামিল্টনের সাথে সমানে সমানে পাল্লা দিতে থাকে। পরের তিন বছর ঠিক হ্যামিল্টনের পেছনে থেকে রানার্স আপ হন তিনি। টিমে নতুন উদ্যোম আনতে গত বছর কিমি রাইকোনেনকে বিদায় জানিয়ে ২১ বছর বয়সী ফ্রেঞ্চ রেসার শার্ল লেক্লেয়ারকে ভেটেলের পার্টনার বানায় ফেরারি। ঝামেলার শুরু তখন থেকেই।

    কোয়ালিফাইং এবং রেসে একাধিকবার লেক্লেয়ারের সাথে ঝামেলায় জড়ান সেব। ২০১৯ এর চ্যাম্পিয়নশিপে ফেরারিকে প্রথম জয়ের স্বাদ এনে দেন লেক্লেয়ার, প্রথমে বেলজিয়ামে, পরে ইতালিতে নিজের আঙিনায়। এরপর থেকেই তরুণ টিমমেটের সাথে ভেটেলের ঝামেলা দৃশ্যমান হতে থাকে। টিমের আদেশ অমান্য করা, পিট স্ট্রাটেজি অগ্রাহ্য করা- এগুলো তো জারিই ছিল। লেক্লেয়ার যেখানে ইতালির গ্রাঁ প্রি জিতেছেন সেখানে হাস্যকরভাবে রেসের শুরুতেই নিজের ভুলে ডিসকোয়ালিফাই হয়েছেন ভেটেল।

    সবচেয়ে বড় ধাক্কাটা আসে ব্রাজিলের গ্রাঁ প্রির বিখ্যাত ইন্টারলাগোস সার্কিটে, সারা বিশ্বকে অবাক করে দুই ফেরারি নিজেদের মাঝে পাল্লা দিতে গিয়ে সংঘর্ষে পড়ে দূটো গাড়িই রেস থেকে ছিটকে যায়। গোটাটাই আদতে  ছিল ভেটেলের ভুল বা ইচ্ছাকৃত স্যাবোটাজ। তখনি প্রায় সবাই ভেটেলের বিদায়ঘন্টা শুনে ফেলেছিলেন। সেই ঘোষণা আসতে অপেক্ষা করতে হয়েছে এই ২০২০ এর মে পর্যন্ত।


    কী করবেন ভেটেল?
    এখন ভেটেলের গন্তব্য নিয়েও বেশ জল্পনা কল্পনা হচ্ছে। প্রথমে ধারণা করা হচ্ছিল হয়ত হ্যামিল্টনের পার্টনার হিসেবে মার্সিডিজ দলে টানবে তাঁকে। তবে মার্সিডিজ তাদের দুই ড্রাইভার হ্যামিল্টন এবং বোটাসের সাথে চুক্তি নবায়ন করবে বলে জানিয়েছে।  কথা শোনা যাচ্ছিল ভেটেল হয়ত আবার তাঁর পুরনো টিম রেড বুলে যোগ দেবেন। তবে রেড বুল জানিয়েছে একই সাথে দুইজন ‘ভি’ কে সামলানো তাদের পক্ষে সম্ভব না এবং তাঁরা তাদের বর্তমান ‘ভি’ ম্যাক্স ভারস্টাপেনের ওপরই বাজি রাখছেন। এক্ষেত্রে অনেকের আশংকা রয়েছে হয়ত সেবাশ্চিয়ান ভেটেল ৩২ বছর বয়সেই ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিতে পারেন। ভেটেল এখনই অবসরে চলে গেলে সেটা রেসিং জগতের জন্য বেশ বড় একটা ধাক্কাই হবে। তবে আশা করা যায় করোনা পরিস্থিতি শেষ হওয়ার আগেই ভেটেলের ভবিষ্যত নিয়ে অন্ধকার কেটে যাবে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন