• বুন্দেসলিগা
  • " />

     

    টুথপেস্ট কিনতে দোকানে গিয়ে ডাগআউটে নিষিদ্ধ বুন্দেসলিগার কোচ

    দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে হয়ত এই দিনটির অপেক্ষা করছিলেন হেইকো হেরলিখ। কবে আবার ফিরবেন মাঠে! কিন্তু তার মাঠে ফেরার দিন-তারিখ আপাতত পিছিয়ে গেল আরেক দফা।শনিবার থেকে আবার বুন্দেসলিগা শুরু হলেও তিনি থাকবেন না দলের সঙ্গে। কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙায় এক ম্যাচের জন্য অসবার্গ কোচকে নিষিদ্ধ করেছেন জার্মান লিগ কমিটি।

    করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার পর ইউরোপের দেশগুলোর ভেতর সবার আগে মাঠে ফিরছে জার্মানির ফুটবল। তবে খেলোয়াড়, কোচসহ সবাইকে মানতে হচ্ছে কঠিন নিয়ম। ম্যাচ ও অনুশীলন বাদে খেলোয়াড় ও কোচদের থাকার কথা কোয়ারেন্টিনে। এমননি দোকানে যাওয়ার অনুমতিও নেই তাদের। খেলা গড়ানোর দুই সপ্তাহ আগে থেকেই কঠোরভাবে এই নিয়ম অনুসরণ করে আসছে বুন্দেসলিগার ক্লাবগুলো।

    হেরলিখ হোটেল থেকে বেরিয়ে দোকানে যাওয়ার জন্যই পেয়েছেন সাজা। হোটেলের কাছাকাছি এক দোকানে তিনি গিয়েছিলেন টুথপেস্ট কিনতে। কিন্তু লিগ কমিটির কড়া নজরদারি এড়াতে পারেননি হেরলিখ। এ ঘটনার পর অবশ্য নিজের ভুলটা ভালোভাবেই বুঝতে পেরেছেন তিনি, "হোটেল থেকে বের হওয়ার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। যদিও আমি পরিচ্ছন্নতার সব নিয়ম অনুসরণ করেই বেরিয়েছিলাম। তবে কাজটা ভালো হয়নি। এই পরিস্থিতিতে সমাজের সামনে যেমন দায়িত্বশীল আচরণ করে উদাহরণ সৃষ্টি করা উচিত ছিল তা আমি করতে পারিনি।"- বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন হেরলিখ।

    "ভুলটা তাই মেনে নিচ্ছি। শুক্রবার ম্যাচের আগে আমার দলের অনুশীলনে থাকব না আমি। শনিবার ভলফসবার্গের বিপক্ষে ম্যাচের দিনও থাকা হবে না আমার।" 

    হেরলিখকে আবার মাঠে ফেরার আগে আরও দুইবার যেতে হবে করোনাভাইরাস টেস্টের মধ্য দিয়ে। ফল নেগেটিভ আসলে এরপরই দলের দায়িত্বে আবার দেখা যাবে তাকে। বুন্দেসলিগায় সব খেলোয়াড়েরই  প্রতি সপ্তাহে এক থেকে দুইবার করোনা পরীক্ষা হবে।