• বুন্দেসলিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    লেভানডফস্কির ৪০ এ জয়ে শুরুর বায়ার্ন মিউনিখের

    ফুলটাইম
    ইউনিয়ন বার্লিন ০-২ বায়ার্ন মিউনিখ


    টানা দ্বিতীয়দিনের মতো জার্মানিতে চলেছে 'অদ্ভুত ফুটবল'। ফাঁকা মাঠ, নির্লিপ্ত গোলউদযাপন আর সামাজিক দূরত্বের ফুটবলে বায়ার্ন মিউনিখের শুরুটাও হয়েছে ভালো। ইউনিয়ন বার্লিনকে হারাতে বেগ পেতে হয়নি তাদের তেমন। এই জয়ের বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে শীর্ষস্থানের দূরত্বটা আবারও ৪ এ নিয়ে গেছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

    ফুটবলের চেহারা অপরিচিত হলেও রবার্ট লেভানডফস্কি তার পুরনো চেহারাই দেখিয়েছেন। প্রথমার্ধে পেনাল্টি থেকে গোল করে মৌসুমের ৪০ এর কোটা পেরিয়ে গেছেন তিনি। এই নিয়ে টানা পঞ্চম মৌসুম করলেন একই কীর্তি। ম্যাচ শেষের ১০ মিনিট আগে আরেক গোল করেছেন বেঞ্জামিন পাভার্দ।



    লেভানডফস্কি গোল উদযাপনে ব্যবহার করেছেন কনুই। তবে পাভার্দ গোলের পর আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। ডেভিডে আলাবাকে জড়িয়ে ধরেই হয়েছে তার উযাপন। সাজা হয়ত পাবেন না, তবে লিগ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সতর্কবাণী একটা পেতেই পারেন পাভার্দ!

    নিয়ম ভেঙে ম্যাচে নিষিদ্ধ থাকার অনুভূতি কেমন সেটা অবশ্য ইউনিয়ন বার্লিন কোচ হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন। বুন্দেসলিগা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে থেকে খেলোয়াড়, কোচদের কোয়ারেন্টিন পালনের নিয়ম ছিল। ইউনিয়ন কোচ উরস ফিশার নিয়ম ভেঙে নিষিদ্ধ ছিলেন ম্যাচে। নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার বুন্দেসলিগায় ওঠা ইউনিয়নের জার্মান জায়ান্টদের বিপক্ষে খেলার দিনটায় ডাগআউটে থাকতে পারেননি তিনি।

    ইউনিয়ন বার্লিন ঘরের মাঠে বেশি অভাব বোধ করেছে নিজেদের অন্তপ্রাণ সমর্থকদের সমর্থনের। ঘরের মাঠের সমর্থন কাজে লাগিয়ে বুন্দেসলিগার বড়দের এবার নিয়মিতই হারাচ্ছিল তারা। ফাঁকা মাঠে সেই সমর্থনটুকুও পুঁজি হয়নি আর তাই ইউনিয়নের। বায়ার্নের রাজসিক আক্রমণভাগের কাছে পাত্তাই পায়নি তারা। আক্রমণেও নিজেরা ছিল ভোঁতা।

    লিয়ন গোরেতস্কা প্রথমার্ধে পেনাল্টি আদায় করে নিয়েছিলেন। পরে লেভাডফস্কি ধীর-স্থিরভাবে একবার থেমে নিচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্থ করেছেন। আর জশুয়া কিমিচের ক্রস থেকে হেডে গোল করেছেন পাভার্দ। অন্যদিনে ম্যানুয়েল নয়্যার একেবারে অলস সময় পার করেছেন এক কোণায়। 

    আরও একবার মাঠেই বল জীবানুনাশক করা হয়েছে। বলবয়রা জীবানুনাশক বল রেখেছেন একপাশে। খেলোয়াড়রাই পরে কুড়িয়ে এনে ওই বলে খেলেছেন। ম্যাচ চলার সময় বল সীমানার বাইরে যাওয়ার পর এই দৃশ্য দেখা গেছে নিয়মিত।

    রীতি বদলালেও অবশ্য বায়ার্ন মিউনিখ রীতিটা বজায় রাখল জয় দিয়ে। লিগের বাকি আর ৮ ম্যাচ। বার্লিনে জয় দিয়ে টানা অষ্টম শিরোপার পথে আরেকটু এগুলো বায়ার্নও।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন