• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    সিপিএল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন ক্রিস গেইল

    ২০২০ ক্যারিবিয়ারন প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন ক্রিস গেইল। সোমবার নিজের ফ্র্যাঞ্চাইজি সেন্ট লুসিয়া জুকসকে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন গেইল। ব্যক্তিগত কারণে এবারের টুর্নামেন্টে খেলছেন না তিনি, জানিয়েছে ক্রিকইনফো। 

    ১৮ আগস্ট থেকে ১০ সেপ্টেম্বরের মাঝে সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে শুধুমাত্র ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগোতে হওয়ার কথা এবারের সিপিএল। ২৪ জুন ভার্চুয়ালি হওয়ার কথা ছিল এবারের আসরের প্লেয়ারস ড্রাফট। তবে পরিবারকে সময় দিতে টি-টোয়েন্টির ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি রানের মালিক নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন, বলা হচ্ছে এমন। 

    কভিড-১৯ মহামারিতে লকডাউনের পর থেকে নিজে জ্যামাইকা আছেন গেইল, যেখানে তার স্ত্রী ও পরিবার আছেন সেন্ট কিটসে। গেইল বলেছেন, শিশুসন্তানসহ পরিবারকে সময় দিতে একটা বিরতি প্রয়োজন তার। গত সেপ্টেম্বরে ৪০ পার করে আসা গেইল এখনও খেলা চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন এর আগেই।  

    জ্যামাইকা তালাওয়াসের সঙ্গে ঝামেলার পর শেষ এপ্রিলে জুকসে যোগ দিয়েছিলেন গেইল। এপ্রিলে সাবেক সতীর্থ ও তালাওয়াসের সহকারি কোচ রামনরেশ সারওয়ানসহ ম্যানেজমেন্টের ওপর নিজের প্রকাশ্য ক্ষোভ জানিয়েছিলেন গেইল। 

    সিপিএলে এর আগে তালাওয়াসের হয়ে দুইবার, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের হয়ে টানা দুই মৌসুম খেলেছিলেন গেইল। সম্প্রতি মালিকানায় পরিবর্তন এসেছে জুকসে, আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালিকপক্ষ কিনে নিয়েছে এটি। হেড কোচ হিসেবে অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারকেও নিয়োগ দিয়েছে তারা।

    গেইল সরে যাওয়ায় ড্রাফটের পরিকল্পনায় বদল আনতে হবে তাদের, যাকে ড্রাফটের বাইরে থেকে কিনেছিল তারা। ‘মার্কারি’ ক্যাটাগরিতে এখন কল করার সুযোগ পাবে তারা। 

    কভিড-১৯ মহামারিতে এবার নির্ধারিত অঙ্কের চেয়ে কম টাকা পাবেন সিপিএল খেলা ক্রিকেটাররা। সে হিসেবে গেইলের পাওয়ার কথা ছিল ১ লাখ ১২ হাজার ইউএস ডলার। তবে এসবের সঙ্গে গেইলের না খেলার কোনও সম্পর্ক নেই বলেই জানানো হয়েছে। 

    সিপিএলের এক মুখপাত্র ক্রিকইনফোকে বলেছেন, “আমরা যেটা বুঝতে পারছি, ক্রিস ব্যক্তিগত কারণে এবার খেলছে না। আমরা এ বছরের বাকি সময়ের জন্য তাকে শুভকামনা জানাই। আশা করি ২০২১ সিপিএলে তাকে ফিরে পাব।” 

    ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলেননি গেইল। এর আগে অবসরের কথা উঠলেও পরে খেলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি, ৪৫ বছর পর্যন্ত। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন