• লা লিগা
  • " />

     

    রেকর্ড সপ্তমবারের মতো লা লিগার গোল্ডেন বুট মেসির

    মৌসুমটা লিওনেল মেসির ভালো যায়নি। আগেও বহুবার বলেছেন তার কাছে ব্যক্তিগত সাফল্য আহামরি কিছু না।   ক্লাবের সঙ্কটময় পরিস্থিতিতেও অবশ্য ব্যক্তিগত রেকর্ড গড়া থেকে বিরত থাকেননি মেসি। সবমিলিয়ে রেকর্ড সপ্তমবারের আর টানা চতুর্থবারের মতো লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পিচিচি ট্রফি জিতেছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক।

    লা লিগার প্রায় ১০০ বছরের ইতিহাসে সাতবার লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার হওয়ার রেকর্ড আর দ্বিতীয়টি নেই। এতোদিন কিংবদন্তী তেলমো জারার সঙ্গে রেকর্ড ভাগাভাগি করছিলেন মেসি। এবার মৌসুমে ২৫ গোল করেই সপ্তমবারের মতো হয়ে গেলেন লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতা।


    মেসি ছাড়াও গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে ছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের করিম বেনজেমাও। লিগের শেষদিন পর্যন্ত দুইজনের গোলব্যবধান ছিল দুই। তবে শেষদিনে আলাভেসের বিপক্ষে মেসি জোড়া গোল করার পর বেনজেমার নাগালের বাইরে চলে যান। রিয়ালের শেষ ম্যাচে লেগানেসের বিপক্ষে বেনজেমাও আর গোল পাননি। বেনজেমা থেমেছেন ২১ গোল নিয়ে।

    ২০০৯-১০ মৌসুমে প্রথমবারের মতো লা লিগার শীর্ষ গোলদাতা হয়েছিল মেসি। এরপর জিতেছেন আরও ছয়বার। তবে কোনোবারই ৩০ এর কম গোল না নিয়ে লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা হননি মেসি। সেদিক দিয়ে এবারের পুরস্কার মেসির জন্য আলাদাই। গত এক যুগের হিসেবে লিগে এটি ৩৩ বছর বয়সীর দ্বিতীয় সর্বনিম্ন গোল।

    গোল কম হলেও অ্যাসিস্টের দিক থেকে একটা রেকর্ড গড়া হয়ে গেছে মেসির। লা লিগায় এক মৌসুমে সর্বোচ্চ অ্যাসিস্ট এখন মেসির। লিগের শেষ ম্যাচে আলাভেসের বিপক্ষে জোড়া গোলের পাশাপাশি একটি অ্যাসিস্টও করেছেন আর্জেন্টাইন। সবমিলিয়ে তার অ্যাসিস্ট সংখ্যা ২১, জাভির এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ২০ অ্যাসিস্টের রেকর্ড ছাড়িয়ে যেটি লা লিগার ইতিহাসে নতুন রেকর্ড।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন