• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    পরের বছর পর্যন্ত স্থগিত ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, তবে চূড়ান্ত নয় আয়োজক

    স্থগিত হয়ে গেল ২০২০ সালের আইসিসি মেনস টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এ বছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় হওয়ার কথা ছিল এ টুর্নামেন্ট। তবে কভিড-১৯ মহামারির কারণে সেটি হচ্ছে না, পরের বছর অক্টোবর-নভেম্বর পর্যন্ত পিছিয়ে নেওয়া হয়েছে এটি। সোমবার আইসিসির আইবিএস বোর্ড এক মিটিংয়ের পর জানিয়েছে এ সিদ্ধান্ত। 

    অবশ্য সেই আসর অস্ট্রেলিয়াতেই হবে কিনা, তা নিশ্চিত করেনি আইসিসি। পুরোনো সূচিতে ২০২১ সালে ভারতে হওয়ার কথা ছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরের আসর। এখন ২০২২ সালে আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে, এমন জানানো হয়েছে, তবে সেটির ভেন্যুও নিশ্চিত করা হয়নি।

    “২০২১ ও ২০২২ সালের বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট যাতে নিরাপদ ও সফলভাবে হতে পারে, সে লক্ষ্যে ক্রমেই দ্রুতগতিতে বদলে যাওয়া পরিস্থিতি ও সব ধরনের তথ্য পর্যবেক্ষণ ও নিরীক্ষণ করে যাবে আইবিসি বোর্ড”, এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে এমন।   

    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত এখন এলেও এ নিয়ে ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল আগেই। আয়োজক ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও বলেছিল, এ বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন অবাস্তব বা খুবই কঠিন হবে। তবে বারকয়েক আলোচনার পরও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো আইসিসিকে। 


    নতুন সূচি অনুযায়ী আইসিসির টুর্নামেন্টের সময়  

    আইসিসি মেনস টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১ : অক্টোবর-নভেম্বর (ফাইনাল ১৪ নভেম্বর) (আয়োজক চূড়ান্ত হয়নি)
    আইসিসি মেনস টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২ : অক্টোবর-নভেম্বর (ফাইনাল ১৩ নভেম্বর) (আয়োজক চূড়ান্ত হয়নি) 
    আইসিসি মেনস বিশ্বকাপ ২০২৩ : অক্টোবর-নভেম্বর (ফাইনাল ২৬ নভেম্বর) (আয়োজক ভারত) 


    “আমরা বিস্তৃত এবং জটিল বিকল্প ব্যবস্থা নিয়েছি, এ প্রক্রিয়ায় আমাদের খেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তাই সবার আগে প্রাধান্য পেয়েছে”, বিবৃতিতে বলেছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহি মানু সাওনি। 

    “সব রকমের বিকল্প ব্যবস্থা সূক্ষ্ণভাবে পর্যবেক্ষণ করার পর আইসিসি মেনস টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর ফলে বিশ্বজুড়ে থাকা সমর্থকদের জন্য দুটি নিরাপদ ও সফল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে”, বলেছেন তিনি। 

    কভিড-১৯ মহামারিতে দ্বিপক্ষীয় সিরিজের জন্য জায়গা বের করতে পিছিয়ে গেছে ২০২৩ বিশ্বকাপ সূচিও। এফটিপিতে ফেব্রুয়ারি-মার্চে ভারতে এ টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা থাকলেও এখন তা হবে সে বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে।

    এর ফলে বোর্ডগুলি তাদের স্থগিত হয়ে যাওয়া দিপক্ষীয় সিরিজ ও ঘরোয়া ক্রিকেট আয়োজন করতে পারবে বলেও জানিয়েছেন সাওনি। 

    ছেলেদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত করলেও পরের বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপ নিয়ে এখনও আশাবাদি আইসিসি। নিউজিল্যান্ডে হতে যাওয়া এ টুর্নামেন্ট নির্ধারিত সময়েই আয়োজনের জন্য পরিকল্পনা করা হবে বলে জানিয়েছে তারা। যদিও এ বছর হওয়ার কথা সেই টুর্নামেন্টের বাছাইপর্ব স্থগিত হয়ে গেছে এরই মাঝে, তার নতুন সূচিও জানায়নি আইসিসি। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন