• লা লিগা
  • " />

     

    বার্সেলোনার বিরুদ্ধে আদালতে যাবেন সেতিয়েন

    বায়ার্ন মিউনিখ বিপর্যয়ের পর কালবিলম্ব না করেই বার্সেলোনার কোচের পদ থেকে কিকে সেতিয়েনকে ছাটাই করা হয়। নতুন কোচ হিসেবে রোনাল্ড কোম্যানকে নিয়োগও দেওয়া হয়। কিন্তু চাকরি হারালেও সেই সংক্রান্ত কোনো কাগজপত্র এতদিন হাতে পাননি সেতিয়েন। শুধু মৌখিকভাবেই চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছিল তাকে। সেজন্য গত ২৭ আগস্ট ক্লাবে ব্যুরোফ্যাক্স পাঠিয়েছিলেন তিনি। অবশেষে বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে চাকরীচ্যুত করে ব্যুরোফ্যাক্স পাঠিয়েছে বার্সেলোনা। কিন্তু সেখানে বার্সেলোনা চুক্তির কয়েকটি শর্ত লঙ্ঘন করায় ক্লাবটির বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সেতিয়েন।

    গত জানুয়ারিতে আর্নেস্তো ভালভার্দের উত্তরসূরি হিসেবে ন্যু ক্যাম্পে আসেন সেতিয়েন। ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত তার সঙ্গে চুক্তি করে বার্সেলোনা। তবে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে লিগ শিরোপা হারানোর পর থেকেই তাকে ক্লাব বরখাস্ত করবে বলে গুঞ্জন ওঠে। চ্যাম্পিয়নস লিগে বায়ার্নের সঙ্গে হারের পর সেই গুঞ্জন সত্যি হয়।


    তবে দ্রুত বরখাস্ত করতে গিয়ে চুক্তি বাতিলের কোনো কাগজপত্র তার কাছে হস্তান্তর করেনি বার্সেলোনা। সেই কারণে লিওনেল মেসি ক্লাব ছাড়তে চেয়ে ব্যুরোফ্যাক্স পাঠানোর একদিন পর তিনি বার্সেলোনায় কাগজপত্র চেয়ে ব্যুরোফ্যাক্স পাঠান। নতুন চাকরিতে যোগদানের ক্ষেত্রে চুক্তি বাতিলের কাগজপত্রগুলো প্রয়োজন ছিল তার, এছাড়া বার্সেলোনার সঙ্গে ক্ষতিপূরণের বিষয়ে মীমাংসায় আসতেও কাগজপত্র হাতে পাওয়া দরকার ছিল।

    কিন্তু গত বুধবার সেই কাগজপত্র হাতে পেয়ে মোটেও সন্তুষ্ট হতে পারেননি সেতিয়েন এবং তার তিন সহকারী। চুক্তির শর্তগুলো বার্সেলোনা ঠিকঠাক পালন করেনি বলে অভিযোগ করে একটি বিবৃতি দিয়েছেন সেতিয়েন, “এটা সবার জানা যে, গত ১৭ আগস্ট ক্লাব এবং সভাপতি আমাকে চাকরীচ্যুত করার ঘোষণা দেয়। এরপর এক মাস বার্সেলোনা চুপ করে ছিল। আমরা অনেকবারই আমাদের চাওয়া তাদের জানিয়েছি। অবশেষে তারা গতকাল (বুধবার) একটি ব্যুরোফ্যাক্স পাঠিয়েছে।”

    “সেই চিঠিতে ১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ক্লাবের সঙ্গে আমার স্বাক্ষরিত চুক্তির শর্তগুলো মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে বার্সেলোনা। আর এজন্য আমার মনে হয়েছে, আমার অধিকার রক্ষায় আইনজীবীরাই এখন আইনিভাবে এই সমস্যার সমাধান খুঁজবে।”

    ২৭ সেপ্টেম্বর লা লিগায় ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে নতুন কোচ কোমানের অধীনে নতুন মৌসুম শুরু করবে বার্সেলোনা।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন