• ফর্মুলা ওয়ান
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    এমিলিয়া রোমানিয়া গ্রাঁ প্রি : দারুণ জয়ে মার্সিডিজের ৭ম শিরোপা নিশ্চিত করলেন হ্যামিল্টন

    ইতালির ইমোলা সার্কিট ঐতিহাসিকভাবেই জমজমাট দ্বৈরথের মঞ্চ। ভিলনুভ - পিরোনি, সেনা - প্রস্ট, শুমাখার - ব্যারিকেলোর রোমাঞ্চকর সব লড়াই দেখেছে ইমোলা। ইমোলা দেখেছে সর্বকালের সেরা রেসারদের একজন, আয়ার্টন সেনার মৃত্যু। এবারো হতাশ করলো না এই বিখ্যাত সার্কিট, শ্বাসরুদ্ধকর লড়াই শেষে এমিলিয়া রোমানিয়া গ্রাঁ প্রি জিতে নিলেন লুইস হ্যামিল্টন। তাঁর মার্সিডিজ টিমমেট ভ্যালটেরি বোটাস শেষ করেছেন ২য় হয়ে। এতেই ২০২০ এর কন্সট্রাক্টর চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিত হয়ে গেল টিম মার্সিডিজের। এই নিয়ে টানা ৭ম বারের মত শিরোপা ঘরে তুলে নিল টিম মার্সিডিজ। ড্রাইভার্স চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিত করতে আর একটি রেস প্রয়োজন হ্যামিল্টনের। আগামী রেসে বোটাস যদি হ্যামিল্টন থেকে ৭ পয়েন্টের বেশি না পান তবেই নিশ্চিত হয়ে যাবে এই ব্রিটিশ রেসারের ক্যারিয়ারের ৭ম ফরমুলা ওয়ান শিরোপা। 

     


    রেসের শুরুটা ভাল হয় নি হ্যামিল্টনের। আগের দিনের কোয়ালিফাইংএও পোল পজিশান জিততে পারেন নি তিনি। পোল পজিশান জিতে গ্রিডে সবার আগে রেস শুরু করেছেন ভ্যালটেরি বোটাস। বাজে স্টার্টের কারণে শুরুতেই রেড বুলের ম্যাক্স ভারস্টাপেন হ্যামিল্টনকে পিছে ফেলে এগিয়ে যান। অবশ্য ম্যাক্সকে পিছে ফেলতে হ্যামিল্টনকে খুব একটা বেগ পেতে হয় নি। বোটাস ১৯তম ল্যাপ পর্যন্ত হ্যামিল্টনের থেকে ৪ সেকেন্ডের লিডে ছিলেন এবং লিডে থাকা অবস্থাতেই পিট স্টপে যান। হ্যামিল্টন এগিয়ে যান এই সুযোগে। হ্যামিল্টনের ভাগ্যটা এমনই সুপ্রসন্ন ছিল যে তিনি যখন পিট করার সিদ্ধান্ত নেন তখনি রেনোঁর এস্তেবান ওকোনের ক্র্যাশের কারণে ট্র্যাকে ভার্চুয়াল সেফটি কার নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। কাজেই পিট থেকে হ্যামিল্টন তার টিমমেট বোটাস থেকে ২৭ সেকেন্ডের লিড নিয়ে বের হন। এর পর হ্যামিল্টনকে আর কোন চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হয় নি। ওদিকে ২য় স্থানে থাকা বোটাসকে ৪৩তম ল্যাপে পিছন থেকে এসে ভীষণ চাপে ফেলে ভুল করতে বাধ্য করেন ম্যাক্স ভারস্টাপেন। চমৎকার পারফর্মেন্সে বোটাসকে ওভারটেইক করে ২য় স্থান দখল করে নেন ম্যাক্স এবং সেটা ধরেও রেখেছিলেন ৫১ ল্যাপ পর্যন্ত। দুর্ভাগ্যবশত টায়ার পাংচার হয়ে যাওয়ায় রেস শেষ করা হয় নি ম্যাক্সের। তবে দারুণ পারফরমেন্সের কারণে ড্রাইভার অফ দা ডে’র খেতাবটা ঠিকই জিতে নিয়েছেন। 


    সবসময়কার মত মিড ট্র্যাকের লড়াইটা ছিল আরো জমাট। ফেরারির শার্ল লেক্লের, টরো রসোর ড্যানি কভিয়াট এবং রেনোঁর ড্যানিয়েল রিকার্ডোর লড়াইয়ে বিজয়ীর হাসি হেসেছেন রিকার্ডোই। গত তিন রেসে এটা এই অস্ট্রেলিয়ান রেসারের দ্বিতীয় পোডিয়াম। এ লড়াইয়ে লেক্লের শুরুতে এগিয়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত কভিয়াটও ফেরারির আগে ৪র্থ হয়েই শেষ করেছেন। এর পেছনে অ্যালবন, ম্যাগনাসেন, চেকো পেরেজ এবং সাইঞ্জের লড়াই শেষে চেকো আর সাইঞ্জই পয়েন্ট নিয়ে রেস শেষ করতে পেরেছেন। 
    মার্সিডিজের রেকর্ড ৭ম জয় নিশ্চিত হওয়ার পরও যেসব মার্সিডিজ ফ্যানরা ম্যাচ শেষের প্রেস কনফারেন্স দেখেছেন তাঁরা খুব একটা খুশি হতে পারবেন না। মার্সিডিজের টিম প্রিন্সিপাল টোটো উলফ জানিয়েছেন তিনি মার্সিডিজে তাঁর উত্তরসূরী খুঁজছেন। মার্সিডিজকে প্রায় অজেয় করে তোলার মূল কারিগরদের একজন উলফকে প্রতিস্থাপন করা সম্ভব কিনা কেবল সময়ই বলে দেবে। এদিকে এ বছরই যদিও মার্সিডিজের সাথে হ্যামিল্টনের চুক্তি শেষ হয়ে যাচ্ছে, কিন্তু সবাই ধরেই নিয়েছে যে দুই পক্ষই কোন দ্বিধা ছাড়াই নতুন চুক্তি করবে। কিন্তু রেস শেষে হ্যামিল্টনও কথা বলেছেন অন্য সুরে। তিনি বলেছেন, আগামি বছর আমি রেস ট্র্যাকে নামবো কিনা সেটা নিয়েই আমি এখনো নিশ্চিত না। ট্র্যাকে বাইরের ক্যারিয়ার নিয়ে আমি অনেক কিছু চিন্তা করছি। 
    ফর্মের তুঙ্গে থেকে হ্যামিল্টন অবসর নেবেন এমন আশা কেউ করছেন না আপাতত। ইমোলার উত্তেজনার পর আবার দুই সপ্তাহের বিশ্রামে যাবে ফরমুলা ওয়ান। ফিরবে আবার ইস্তাম্বুলে, টার্কিশ গ্রাঁ প্রি দিয়ে। কোন দুর্ঘটনা না হলে ইস্তাম্বুলেই লুইস হ্যামিল্টন নিশ্চিত করবেন তাঁর ৭ম ফরমুলা ওয়ান শিরোপা।  

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন