• ফর্মুলা ওয়ান
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    টার্কিশ গ্রাঁ প্রিঃ ৭ম শিরোপায় শুমাখারকে ছুঁয়ে 'স্বপ্নের চাইতেও বড়' লুইস হ্যামিল্টন

    বৃষ্টি এবং ভেজা ট্র্যাক একজন ফরমুলা ওয়ান ড্রাইভারের পারদর্শিতার সবচেয়ে বড় পরীক্ষা। আয়ার্টন সেনা, এলান প্রস্ট, নিকি লাউডা, মাইকেল শুমাখার, ফার্নান্দো আলোন্সোর মত ফরমুলা ওয়ানের যত কিংবদন্তী রেসাররা আছেন তাদের সবাই নিজেদের শ্রেষ্ঠত্বের পরিচয় দিয়ে গেছেন বৃষ্টিস্নাত রেসিং ট্র্যাকে। এদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে লুইস হ্যামিল্টনও ইস্তাম্বুলে দেখালেন কেন তাঁকে সর্বকালের সেরাদের একজন বলা হয়। ভেজা ট্র্যাকে ৬ষ্ঠ অবস্থানে শুরু করে দারুণ ড্রাইভিং পারফরমেন্সে জিতে নিলেন টার্কিশ গ্রাঁ প্রি। আর এর মাধ্যমেই এই মৌসুমের ৩টি রেস বাকি থাকতেই নিশ্চিত করে ফেললেন তাঁর ক্যারিয়ারের ৭ম ফরমুলা ওয়ান শিরোপা। ছুঁয়ে ফেললেন মাইকেল শুমাখারের ‘অসম্ভব’ মনে হওয়া ৭ শিরোপার রেকর্ডকে। 


    শনিবারের কোয়ালিফাইং এর পারফরমেন্স লুইস হ্যামিল্টনের জন্য যথেষ্টই হতাশাজনক ছিল। পোল পজিশান তো দূরের কথা প্রথম গ্রিডেই জায়গা করে নিতে পারেন নি মার্সিডিজের এই ব্রিটিশ রেসার। কোয়ালিফাইং শেষ করেছেন ৬ষ্ঠ হয়ে। তাঁর টিমমেট ভ্যালটেরি বোটাস হয়েছেন ৯ম। রেসিং পয়েন্টের লান্স স্ট্রোল ক্যারিয়ারের প্রথম পোল পজিশান জিতে নেন। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য অবশ্য রেস ডে তে হ্যামিল্টনের সমীকরণটা বেশ সহজই ছিল, বোটাস তাঁর থেকে ৭ পয়েন্টের বেশি ব্যবধানে না থাকলেই হ্যামিল্টনের শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায়। মনজাতে গত রেসেই মার্সিডিজের শিরোপা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল, অপেক্ষা ছিল কেবল হ্যামিল্টনের উদযাপনের। চ্যাম্পিয়নশিপে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বোটাস থেকে ১ল্যাপ ও ২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে রেস জিতেই শিরোপা ঘরে নিলেন হ্যামিল্টন। 


    ভেজা ট্রাকে মানিয়ে নিতে শুরু থেকেই প্রায় সবাইকেই দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছিল। পোল পজিশানে শুরু করা লান্স স্ট্রোল রেসের অর্ধেক পর্যন্ত ভালভাবেই নিজের শীর্ষস্থান দখল করে রেখেছিলেন। আর ৬ষ্ঠ অবস্থানে শুরু করা হ্যামিল্টন চাকার গ্রিপ ভালভাবে না পেলেও একটু একটু করে এগোচ্ছিলেন। তাঁর মূল দুই প্রতিদ্বন্দ্বী মার্সিডিজ টিমমেট ভ্যালটেরি বোটাস এবং রেড বুলের ম্যাক্স ভারস্টাপেনকে বেশ যুঝতে হয়েছে বৃষ্টি ভেজা ট্র্যাকে। দুইজনই একাধিকবার গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চরকি পাক খেয়েছেন। ৩৭তম ল্যাপে গিয়ে লুইস প্রথমবারের মত শীর্ষস্থান ছিনিয়ে নেন রেসিং পয়েন্টের সার্জিও পেরেজের কাছ থেকে। এর পর থেকে আর কোন সমস্যা হয় নি। বাকি রেসটা শীর্ষে থেকেই শেষ করেছেন তিনি। তবে পোডিয়াম পজিশানের জন্য লড়াইটা ছিল দেখার মত। শ্বাসরুদ্ধকর এক ফিনিশে মাত্র ২ মিলি সেকেন্ডের ব্যবধানে চেকো পেরেজ শেষ করেছেন ২য় হয়ে। ২ মিলিসেকেন্ডের ব্যবধানে ৩য় হয়ে অনেকদিন পর আবার পোডিয়ামে ফিরলেন ফরমুলা ওয়ানের আরেক কিংবদন্তী ফেরারির ড্রাইভার সেবাশ্চিয়ান ভেটেল। বৃষ্টির কারণেই কিনা ভেটেল আবার তাঁর ক্ষুরধার রেসিং পারফরমেন্সে মুগ্ধ করলেন সবাইকে। ২ সেকেন্ডের ব্যবধানে পোডিয়াম মিস করেছেন তাঁর ফেরারির টিমমেট শার্ল লেক্লের। সব মিলিয়ে এই মৌসুমের সবচেয়ে চমকপ্রদ রেস গুলোর একটি উপহার দিয়ে গেল ইস্তাম্বুল। লান্স স্ট্রোলের জন্য একটি খুব হতাশাজনক দিন গেল, ৩৬ ল্যাপ পর্যন্ত এগিয়ে থেকে রেসিং পয়েন্ট টিমের পিটস্টপের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে তিনি শেষ করেছেন ৯ম হয়ে। দিনটি ভুলে যেতে চাইবেন বোটাসও, তিনি শেষ করেছেন ১৪তে। 


    রেস শেষে উচ্ছ্বসিত হ্যামিল্টন বলেছেন, পুরো ব্যাপারটাই অকল্পনীয়। ছেলেবেলায় টিভিতে শুমাখারকে যখন একটার পর একটা শিরোপা জিততে দেখতাম তখনি আমার মনে হতো এই লোককে ছাড়িয়ে যাওয়া অসম্ভব। ফরমুলা ওয়ানে ২-৩টা শিরোপা জেতাই বিশাল অর্জন, আর সেখানে ৭টা? আমি ভাবতেও পারি না। আজকে আমি আমার স্বপ্নের থেকেও বড় জায়গায় এসেছি। সকল ধন্যবাদ আমার মার্সিডিজ টিম আর আমার পরিবারকে। 


    দুই সপ্তাহ পর বাহরাইনের দুটি রেস নিয়ে আবারো ফিরবে ফরমুলা ওয়ান। মার্সিডিজ আর হ্যামিল্টনের শিরোপা নিশ্চিত হয়ে গেলেও রেড বুল এবং ম্যাক্স ভারস্টাপেন ২য় হতে পারেন কিনা সেটারই অপেক্ষায় থাকবে সবাই। 
      

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন