• অন্যান্য খবর
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    আন্তর্জাতিক বিরতির অভিশাপ: চোট ও করোনা-ভাইরাস কেড়ে নিল যাদের

    আন্তর্জাতিক বিরতি সব সময়ের ক্লাবগুলোর জন্য অভিশাপ। করোনা ভাইরাস আসায় এবার সেটা যেন আরও বেশি করে লেগেছে ক্লাবগুলোর। কোভিড-১৯ এর সঙ্গে চোটে কমবেশি সব ক্লাবেরই বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় পড়েছে চোটে।

     

    রিয়াল মাদ্রিদ

    আন্তর্জাতিক বিরতির শেষ দিনে জোড়া ধাক্কায় বেসামাল রিয়াল মাদ্রিদ। যথাক্রমে স্পেন ও ফ্রান্সের হয়ে খেলতে গিয়ে চোট পেয়েছেন দুই সেন্টারব্যাক অধিনায়ক সার্জিও রামোস ও রাফায়েল ভারান। রামোসের চোট হ্যামস্ট্রিংয়ের, আর ভারান ব্যথা পেয়েছেন কাঁধে। এই শনিবার ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে মাঠে নামাটা তাই অনিশ্চিত তাদের।  বেনজেমা ভ্যালেন্সিয়ার সঙ্গে ম্যাচেই চোট পেয়েছিলেন, অন্যদিকে এখনো করোনা থেকে সেরে ওঠেননি এদার মিলতাও ও হ্যাজার্ড। জিদান অবশ্য করোনা-নেগেটিভ হওয়ার পর ফিরে পাচ্ছেন কাসেমিরোকে, আর চোট থেকে ফেরার পথে কারভাহাল, অদ্রিওজলা ও নাচো।

     

    বার্সেলোনা

    জার্মানির বিপক্ষে স্পেনের ৬-০ গোলের জয়ে হাঁটুতে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছেন মিডফিল্ডার সার্জিও বুস্কেটস। এই শনিবার অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে নামা হচ্ছে না তার। তবে কোমানের জন্য আশার কথা, অনুশীলনে ফিরেছেন ফিলিপ কুতিনিয়ো। এই ম্যাচে খেলা হচ্ছে না অ্যাটলেটিকোর স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজেরও, উরুগুয়ের হয়ে খেলতে গিয়ে করোনা পজিটিভ হয়েছেন তিনি।

     

    লিভারপুল

    প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি চোটের সমস্যায় এখন লিভারপুলই ভুগছে। সমস্যাটা বেশি রক্ষণেই। ভ্যান ডাইক, গোমেজরা আগে থেকেই ইনজুরড ছিলেন। আন্তর্জাতিক বিরতির সময় নতুন করে হয়েছেন লেফটব্যাক রবার্টসন, আর বিরতির ঠিক আগে হয়েছেন রাইটব্যাক ট্রেন্ট আলেকজান্ডার আরনল্ড। রবার্টসন অবশ্য খেলতে পারেন রোব বার। ওদিকে ইংল্যান্ড-অনূর্ধ্ব ২১ দলের হয়ে খেলতে গিয়ে চোট পেয়েছেন রিজ উইলিয়ামস।

    সমস্যা আছে মিডফিল্ডেও, অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসন ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম ম্যাচে চোট পেয়েছেন। করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়ে লেস্টারের বিপক্ষে থাকছেন না মো সালাহও।

     

    ম্যান সিটি

    স্ট্রাইকার সংকটে ম্যান সিটি ভুগছিল আগে থেকেই। আন্তর্জাতিক বিরতিতে পেপ গার্দিওলার দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে চোট পেয়েছেন রাহিম স্টার্লিং। গত শুক্রবারই হালকা চোট পাওয়ার পর ইংল্যান্ডের অনুশীলন থেকে ক্লাবে ফিরেছেন। এখন পর্যন্ত চোট বেশি গুরুতর নয় বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে বেশ ভালোরকম চোট পেয়েছেন ডিফেন্ডার নাথান আকে। নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে বেশ কিছুদিন মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে।

     

    চেলসি

    বেলজিয়ামের ম্যাচে চোট পেয়ে উঠে গিয়েছিলেন ইংল্যান্ড লেফট ব্যাক বেন চিলওয়েল। তবে ফ্রাংক ল্যাম্পার্ডের জন্য আশার খবর, এই ডিফেন্ডার আবার চোট কাটিয়ে অনুশীলনে ফিরেছেন। তবে করোনা-পজিটিভ হওয়ায় এখনও মাঠে নামতে পারছেন না কাই হ্যাভার্টজ আর হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট থেকে এখনো সেরে ওঠেননি ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচ। অন্যদিকে ব্রাজিলের হয়ে খেলার পর এই সপ্তাহে নাও থাকতে পারেন সেন্টার ব্যাক থিয়াগো সিলভা।

    ম্যান ইউনাইটেড

    এভারটনের সঙ্গে ম্যাচের পরেই বাঁ কাঁধের চোটে ইংল্যান্ডের দল থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন মার্কাস রাশফোর্ড। ওয়েস্ট ব্রমের সঙ্গে তার ফেরাটা এখনো অনিশ্চিত। ফ্রান্সের অনুশীলনে পিঠে চোট পেয়েছেন অ্যান্থনি মার্শিয়াল, সুইডেনের সঙ্গে ৪-২ গোলের জয়ে তার মাঠে নামা হয়নি। সেই ম্যাচেই আবার চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছেন সুইডিশ সেন্টার ব্যাক ভিক্টর লিন্ডেলফ। দুজনেরই এই সপ্তাহে মাঠে নামা অনিশ্চিত। তবে করোনা-নেগেটিভ হওয়ায় এই সপ্তাহে মাঠে নামতে পারেন লেফট ব্যাক অ্যালেক্স টেলেস।

    টটেনহাম

    আন্তর্জাতিক বিরতি নিয়ে ইন্সটাগ্রামে নিজের অসন্তোষের কথা বলেছিলেন হোসে মরিনহো। টটেনহাম কোচের অবশ্য অন্তুষ্ট হওয়ার কারণ আছে, ডিফেন্ডার ম্যাট ডোহার্টি যে আয়ারল্যান্ডের হয়ে খেলতে গিয়েই করোনা-পজিটিভ হয়েছেন। দশ দিনের জন্য তাই মাঠে নামা হচ্ছে না তার।

    আর্সেনাল

    মিশরের হয়ে খেলতে গিয়ে করোনা পজিটিভ হয়েছেন মিশরের মিডফিল্ডার মোহাম্মদ এলনেনি। আপাতত কায়রোতে ফিরে আইসোলেশনে আছেন তিনি, এই সপ্তাহে তাই মাঠে নামা হচ্ছে না তার। আন্তর্জাতিক বিরতির ঠিক আগে চোট পেয়েছিলেন মিডফিল্ডার টমাস পার্টে। সেজন্য ঘানার সঙ্গে যোগ না দিয়ে লন্ডনেই ছিলেন।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন