• ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    রাহানেতেই সুরাহা হলো কোণঠাসা ভারতের

    ৩৬ রানে অলআউট হওয়ার দুঃস্বপ্নটা একদম তাজা। তার ওপর দেশে ফিরে গেছেন নিয়মিত অধিনায়ক ও দলের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। নেই স্ট্রাইক বোলার ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি। ইনিংসের মাঝে চোট পেয়ে বাইরে চলে গেলেন আরকে বলার উমেশ যাদব, মাত্র দুজন পেসার নিয়েই চালাতে হলো। এই পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়াল ভারত, বক্সিং ডে টেস্টে টানা দ্বিতীয় সিরিজে জিতল ৮ উইকেটে। একটা জয়ে বোধ হয় এর চেয়ে বেশি বার্তা দেওয়া যেত না। আর সেটার পেছনে মূল অবদান অধিনায়ক ও এই টেস্টের ম্যাচসেরা আজিংকা রাহানের।

    কোহলির জায়গায় অধিনায়কত্ব করতে নেমে রাহানের কাজটা সহজ ছিল না। দলে দুজন নবাগত, শুভমান গিল ও মোহাম্মদ সিরাজ। তার চেয়েও বড় সমস্যা, আগের টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে অসি বোলারদের খেলতেই পারেনি। সেখান থেকে ভারত কী দারুণভাবেই না ঘুরে দাঁড়াল। অনেকে ২০০৭-০৮ মৌসুমে পার্থে সেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাওয়া জয়ের সঙ্গেও এটিকে তুলনা করছেন। তবে সেটা না হলেও এই জয়টা দেশের বাইরে ভারতের সেরাগুলোর একটি, তা নিয়ে খুব সংশয় নেই।

    প্রথম ইনিংসেই লাগামটা নিজেদের কাছে তুলে নিয়েছে ভারত। শুরুতে ব্যাট করতে নেমেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া, অলআউট হয়ে গেছে ১৯৫ রানে। বুমরা ৪ উইকেট নিয়ে বরাবরের মতই সামনে থেকে পথ দেখিয়েছেন, তবে ৩ উইকেট নিয়ে মুগ্ধ করেছেন নবাগত মোহাম্মদ সিরাজও। তবে ভারত নিজেদের ১ম ইনিংসেই আসলে লাগামটা নিজেদের হাতে তুলে নিয়েছে। শুভমান গিল প্রথম ইনিংসেই দেখিয়েছেন, কেন তাকে ভবিষ্যতের জন্য একজন বলে মনে করা হচ্ছে। রাহানে নিজেই জোয়ালটা তুলে নিয়েছিলেন কাঁধে, তার সেঞ্চুরির ওপর ভর করেই ৩২৬ রান তুলেছে ভারত। ৫৭ রান করে রবীন্দ্র জাদেজা ও ৪৫ করে গিল দিয়েছেন তাকে যোগ্য সাহচর্য।

    দ্বিতীয় ইনিংসেও অস্ট্রেলিয়াকে ঘুরে দাঁড়ানোর কোনো সুযোগ দেয়নি ভারত। এবারও শুরু থেকেই চেপে ধরেছেন অশ্বিন-জাদেজারা। স্মিথ এই ইনিংসেও ব্যর্থ, এই সিরিজে এখনও দুই অংক পার হতে পারেননি। লাবুশান কাঁপতে কাঁপতে ফিরে গেছেন, ওয়েড শুরুটা ভালো করেও ধরে রাখতে পারেননি। বার্নস জানিয়ে দিয়েছেন, তাকে বাদ দেওয়ার সময় এসেছে। হেডের মাথাও কাজ করেনি ঠিকমতো। নতুন ক্যামেরন গ্রিন চেষ্টা করলেও তার ৪৫ রানের ইনিংস যথেষ্ট ছিল না। চতুর্থ দিন সকালে তাই অস্ট্রেলিয়া অলআউট ২০০ রানে।

    ভারতের সামনে লক্ষ্য ৭০ রান, না জেতার কোনো কারণ নেই। কিন্তু আগের টেস্ট মাথায় রাখলে একটু আশা দেখতে পারত অস্ট্রেলিয়া। ১৬ রানে আগরওয়াল ও ১৯ রানে পূজারাকে ফিরিয়ে একটু দেখাচ্ছিলও। কিন্তু গিল আবারও দেখিয়েছেন, তার মধ্যে বড় কিছুর সম্ভাবনা আছে। আর রাহানে ছিলেন আগের মতোই স্থিতধীর। দুজন আর কোনো উইকেট পরতে না দিয়েই জিতিয়ে এসেছেন দলকে। ভারত পেয়েছে অবিস্মরণীয় এক জয়।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন