• সিরি আ
  • " />

     

    পারফেক্ট হ্যাটট্রিকের পর রোনালদো বললেন, কেন তিনি এতোদিন পেলেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার উদযাপন করেননি

    পারফেক্ট হ্যাটট্রিকের পর রোনালদো বললেন, কেন তিনি এতোদিন পেলেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার উদযাপন করেননি    

    সর্বকালের সেরা গোলদাতা কে, সেটা নিয়ে বিতর্ক চলছে অনেক দিন ধরেই। কিছুদিন আগেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ৭৬০ গোল করার পর তাকেই বলা হয়েছিল সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা। তবে অনেকের মতে এর আগের রেকর্ড যার, সেই পেলে নিশ্চুপ ছিলেন। তবে কাল রোনালদোর ৭৭০ গোলের পর পেলে নিজেই অভিনন্দন জানালেন সিআরসেভেনকে, ব্রাজিলের ফুটবল সম্রাট রোনালদোকে মেনে নিয়েছেন 'আনুষ্ঠানিক' গোলের হিসেবে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা হিসেবে। 


    রোনালদো কি আসলেই যৌথভাবে সর্বকালের সেরা গোলদাতা?


    ফুটবলে গোলের হিসেবের জন্য সেভাবে আনুষ্ঠানিক হিসেব না থাকায় সবচেয়ে বেশি গোল কার, সেটা নিয়ে বিতর্ক ছিল। ফুটবলের পরিসংখ্যান সংস্থা আরএসএসএফের মতে, এতদিন সেই কীর্তি ছিল চেক প্রজাতন্ত্রের জোসেফ বিকানের, তার অফিসিয়াল গোল ৭৫৯টি। অন্যদিকে পেলের অফিসিয়াল গোল ধরা হচ্ছিল ৭৫৭টি। তবে পেলে নিজে বলেছেন, তার অফিসিয়াল গোল ৭৬৭টি। সেই কীর্তিটা এর মধ্যেই ছুঁয়েছিলেন রোনালদো। কাল হ্যাটট্রিক করে দুজনকেই ছাড়িয়ে গেলেন, রোনালদোর গোল এখন ৭৭০টি। 

    এই হ্যাটট্রিকের পরেই পেলে ইনস্টাগ্রামে এক উষ্ণ বার্তায় অভিনন্দন জানান রোনালদোকে, 'ক্রিশ্চিয়ানোকে অভিনন্দন আমার অফিসিয়াল গোলের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাওয়ার জন্য। জীবন একটা যুদ্ধের মতো, এখানে লড়াই নিজেকে লড়তে হয়। আর সেই লড়াই কী সুন্দরভাবেই না তুমি চালিয়ে যাচ্ছ! তোমার খেলা দেখলে সবসময় আমার দারুণ লাগে, এটা আমি অনেককেই বলেছি। আমার আজ একটাই দুঃখ, তোমাকে জড়িয়ে ধরে অভিনন্দন জানাতে পারলাম না। তবে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা থাকবে সবসময়ই।'

    রোনালদোও ফুটবল গ্রেটের এই স্বীকৃতির পর উষ্ণবার্তা ফিরিয়ে দিতে দেরি করেননি, ''গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই খবর আসছিল, আমি পেলের ৭৫৭ গোলের অফিসিয়াল রেকর্ড ভেঙেছি। তবে আমি এটা নিয়ে চুপ ছিলাম, কেন সেই কারণ এখন ব্যাখ্যা করছি। আমি সবসময়েই বলে এসেছি, এডসন আরান্তেস দে নাসিমেন্তো পেলের প্রতি আমার শ্রদ্ধা ছিল, আছে, থাকবে। আমি সেজন্যই তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার ৭৬৭ গোলের রেকর্ডটাই অফিসিয়াল হিসেবে ধরেছি, যেখানে তিনি সাও পাওলো স্টেট দলের হয়ে নয় গোল ও ব্রাজিলের মিলিটারি দলের হয়ে আরও এক গোল করেছেন। এখন আমার অফিসিয়াল গোল হয়েছে ৭৭০টি, সেজন্য আমি প্রথম কথাটা পেলেকেই বলছি। আমাদের সময়ে এমন কেউ নেই যে পেলের গল্প না শুনে বড় হয়নি। আমিও এর ব্যতিক্রম নই। সেজন্য এই রেকর্ডটা ভেঙে দিয়ে আমার আনন্দের সঙ্গে সম্মানও হচ্ছে অনেক। এমন একজনের রেকর্ড আমি ভেঙেছি, ছোটবেলা থেকেই আমি যার মতো হতে চেয়েছি।'

    অবশ্য চেক ফেডারেশনের দাবি, জোসেফ বিকান এখনো অফিসিয়ালি ৮২১ গোল নিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা। তবে আনুষ্ঠানিক হিসেবে বিকানের গোল ৭৫৯টি। 

    কালকের রোনালদোর হ্যাটট্রিক তার কাছে আরও অনেক কারণেই গুরুত্বপূর্ণ। মাত্রই চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়েছে জুভেন্টাস, রোনালদোকে বিক্রি করে দেওয়ার একটা গুঞ্জনও উঠেছে। এর মধ্যে কালকের ম্যাচে হোঁচট খেলে শিরোপার যেটুকু আশা ছিল, সেটাও শেষ হয়ে যেত। রোনালদো আরও একবার দেখালেন, কেন চাপের মুখে তিনি দুর্দান্ত। কর্নার থেকে হেড করে শুরু করেছিলেন গোলের, এরপর পেনাল্টি থেকে পেয়েছেন দ্বিতীয়টি। আর ডিফেন্ডারকে ছিটকে ফেলে ট্রেডমার্ক ফিনিশে বাঁ পায়ে গোল করে পেয়েছেন পারফেক্ট হ্যাটট্রিক। ২৬ ম্যাচে জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৫৫, ২৭ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপার অনেক কাছে ইন্টার মিলান। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন