• " />

     

    দুই কোটির ব্যবধানেই শাস্ত্রী কোচ?

    অনেক জল্পনা কল্পনা শেষে কোচের দায়িত্ব তাঁর কাঁধেই গেছে। অনিল কুম্বলের স্থলাভিষিক্ত হওয়া রবি শাস্ত্রী দায়িত্ব বুঝে নেবে কিছুদিনের মাঝেই। জানা গেছে, কোচ হিসাবে শাস্ত্রী বেতন চেয়েছেন ৭ কোটি রূপি। যেখানে কোচ থাকার সময় কুম্বলে বার্ষিক বেতন দাবি করেছিলেন নয় কোটি রূপি।

    ভারতের ক্রিকেটারদের বেতনের সাথে মিল রেখে নিজের বেতনটাও ঊর্ধ্বমুখী দেখতে চেয়েছিলেন কুম্বলে। পদত্যাগের আগে তাই বাৎসরিক বেতন হিসাবে ‘এ’ গ্রেড ক্রিকেটারদের বেতনের সমষ্টি( যা প্রায় ৯ কোটি রূপি) দাবি করেন। কিন্তু বোর্ড এই বড় অংকের বেতন দিতে একেবারেই রাজি ছিল না। অন্যদিকে কোহলির পছন্দের কোচ শাস্ত্রী ২ কোটি রূপি কম বেতন চেয়েছেন।

    শাস্ত্রীর বেতন নিয়ে বিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট সিকে খান্না, প্রধান নির্বাহী রাহুল জোহরি, পরিচালনা কমিটির সদস্য ডায়ানা এদুলজি ও অমিতাভ চৌধুরী বৈঠকে বসবেন খুব দ্রুতই। এই বৈঠকে কথা হতে পারে জহির খান ও রাহুল দ্রাবিড়ের নিয়োগ চূড়ান্ত করা নিয়েও। ১৯ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে দলের দায়িত্ব নিতে পারেন শাস্ত্রী।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন