• বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা
  • " />

     

    'এই সফর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য সতর্কবার্তা'

     

    টেস্ট সিরিজের দুঃস্বপ্নের পর ওয়ানডেতে ঘুরে দাঁড়ানোর ‘প্রত্যয়’ নিয়েই মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। জয় তো আসেইনি, উল্টো বড় ব্যবধানে হেরে ধবলধোলাই হয়েছে মাশরাফির দল। গতকাল ২০০ রানের বিশাল পরাজয়ের পর মাশরাফি বলছেন, এই সফরের পারফরম্যান্স বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য ‘অশনি সংকেত’।

     

    এই সফরের শুরু থেকেই কোনো কূল কিনারা খুঁজে পাননি বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। মাশরাফি মনে করেন, কন্ডিশনের সাথে এখনো মানিয়ে নিতে পারেনি দল, “এই সফর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য সতর্কবার্তা। সামনে আরও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ও বিশ্বকাপ আছে। দল হিসেবে আমাদের এই ব্যাপারটা বুঝতে হবে। আমরা কন্ডিশনের সাথে একেবারেই মানিয়ে নিতে পারিনি। এটা চ্যাম্পিয়নস ট্রফি থেকেই হচ্ছে। বিদেশের মাটিতে ভালো খেলতে হলে এসব সমস্যা দূর করতে হবে।”

     

    দলের আত্মবিশ্বাসেই ঘাটতি ছিল বলে মানছেন মাশরাফি, “আমার মনে হয় ব্যাটিং ও বোলিংয়ে আমাদের আত্মবিশ্বাসের যথেষ্ট ঘাটতি ছিল। কেউই নিজের দায়িত্ব পালন করতে পারেনি। আমাদের জানতে হবে কেনও এরকমটা হয়েছে। এটা এই সফরে বের করা কঠিন হবে। এটা দীর্ঘমেয়াদি একটা সমস্যা, এটার প্রক্রিয়াটাও দীর্ঘ হবে।”

     

    মাশরাফি মনে করেন, দলকে আরও আক্রমণাত্মক হতে হবে মাঠে, “ভবিষ্যতে এরকম পিচে আমাদের আরও প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নামতে হবে। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির মতো আমাকেও আরও বেশি আক্রমণাত্মক হতে হবে। আমাদের বোলারদের জানতে হবে কীভাবে এরকম পিচে প্রতিপক্ষকে কম রানে আটকাতে হয়। ব্যাটিং সহায়ক পিচ, যেখানে ৩০০-৩৫০ রান অনায়াসে ওঠে, সেখানে ভালো বল করার জন্য অনেক প্রস্তুতি নিতেই হবে।”  

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন