• " />

     

    বাংলাদেশকে শেষ ওভারে জয় এনে দিলেন আফিফ

    শেষ ওভারে দরকার ১৪ রান, সিক্স এ সাইড ক্রিকেটে যেটি কঠিন বলা যাবে না কোনোভাবেই। বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাট করে করেছে ৮৮, অস্ট্রেলিয়া ভালোভাবেই ছিল লক্ষ্যটা টপকে যাওয়ার পথে। দারুণ এক শেষ ওভারে আফিফ হোসেন দিলেন মাত্র ৭ রান,  প্রথম পাঁচ বলে দিয়েছিলেন মাত্র এক রান। তাতেই ৭ রানের জয় পেল বাংলাদেশ, তিন ম্যাচের দুইটিতেই জয়ে পরিষ্কার হলো পরবর্তী রাউন্ডের পথও।

    সিক্স এ সাইড ক্রিকেটের এই টুর্নামেন্ট জাতীয় দলের নয়। তবে টেস্ট খেলুড়ে অনেক দেশই নাম লিখিয়েছে, মূলত অনূর্ধ্ব ১৯ দলের সদস্যদের নিয়েই গড়া দলগুলো। বাংলাদেশের সাইফ হাসানের নেতৃত্বে বাকি পাঁচ সদস্যের সবাই অনূর্ধ্ব ১৯ দলের- মনিরুল ইসলাম, মাহিদুল ইসলাম অংকন, আফিফ হোসেন, রবিউল হক ও কাজী অনিক ইসলাম। দুই দিনের এই টুর্নামেন্টে প্রতি ম্যাচ হয়েছে পাঁচ ওভারের, আজই তিনটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ।

    শ্রীলঙ্কার সঙ্গে শুরুটা ছিল জয় দিয়েই। বাংলাদেশ প্রথম ৫ ওভারে করেছিল ৯৪ রান, সাইফ একাই করেছেন ১৫ বলে ৫৫। পাঁচটি চারের সাথে ছিল পাঁচটি ছয়ও। এই রান তাড়া করেও শেষ ওভার পর্যন্ত আশা জিইয়ে রেখেছিল শ্রীলঙ্কা, শেষ ওভারে দরকার ছিল ২৪ রান। প্রথম চার বলে ১২ রান দেওয়ার পর পঞ্চম বলেই উইকেট পান মনিরুল। বাংলাদেশ ম্যাচটা জেতে ৭ রানে।

    নিউজিল্যান্ড নির্বাচিত একাদশের সঙ্গে পরের ম্যাচেই অবশ্য হোঁচট খায় বাংলাদেশ। এবারও শুরুতে ব্যাট করে বাংলাদেশ করেছিল ৮২, ৯ বলে ৩২ করেছিলেন মাহিদুল। কিন্তু প্রথম দুই বলে দুই উইকেট হারিয়েও শেষ পর্যন্ত ওই রান এক ওভার হাতে রেখেই টপকে যায় নিউজিল্যান্ড।

    অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেও বাংলাদেশ শুরুতে ব্যাট করে, এবার ১১ বলে ৩৪ রান করেছেন সাইফ। ওই রান তাড়া করে সহজেই অস্ট্রেলিয়া জয় পাবে বলে মনে হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত জিতিয়ে দিয়েছেন আফিফ। কাল টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালসহ ফাইনালও হয়ে যাবে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন