• " />

     

    বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় হচ্ছে না বিসিবি নির্বাচন

    বিসিবি নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল আজ। ঢাকা বিভাগের দুইটি পরিচালক পদের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন ছয়জন। আজ শেষ দিনে এসে নাম প্রত্যাহার করেছেন শুধু ঢাকা বিভাগের জুনায়েত হোসেন। যার মানে ৩১ অক্টোবর বিসিবির নির্বাচনে পরিচালক প্রার্থীদের সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন না।

    বর্তমান সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের আগের প্যানেলের প্রায় সবাই আরেক দফায় নির্বাচিত হচ্ছেন, তা জানা হয়েছিল আগেই। শুধু ঢাকা বিভাগের দুজন ও বরিশাল বিভাগের একজন পরিচালক পদেই একাধিক প্রার্থী ছিল। ঢাকা বিভাগের দুজন পরিচালক পদের জন্য মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন ছয়জন। তাঁদের মধ্যে শুধু জুনায়েত হোসেন নাম প্রত্যাহার করায় এখন প্রার্থী আছেন পাঁচজন। কিশোরগঞ্জের সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম, মানিকগঞ্জের নাইমুর রহমান দুর্জয় (আগের মেয়াদেও পরিচালক ছিলেন), নরসিংদীর শাহীনুর ইসলাম ভূইয়া, নারায়ণগঞ্জের তানভীর আহমেদ টিটুর মধ্য থেকে পরিচালক হচ্ছেন দুইজন। অন্যদিকে বরিশাল বিভাগেও একটি পদের জন্য দুজন প্রার্থী হয়েছেন। এমএ আউয়াল বুলু ও আলমগীর খান, মনোনয়ন জমা দিয়েছেন দুজনই।

    আগামী ৩১ অক্টোবর বিসিবির পরিচালক নির্বাচনে এর মধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন ২০জন। তাঁরা হচ্ছেন, নাজমুল হাসান (ঢাকা আবাহনী লিমিটেড), আফজাল-উর-রহমান সিনহা (সূর্যতরুণ ক্লাব), মাহবুব-উল-আনাম (মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব), মনজুর কাদের (শেখ জামাল ক্রিকেটার্স), জালাল ইউনুস (গ্রিন লিফ ক্রিকেট একাডেমি), লোকমান হোসেন ভূঁইয়া (মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব). ইসমাইল হায়দার মল্লিক (ব্রাদার্স ইউনিয়ন), গাজী গোলাম মর্তুজা (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স), তানজিল চৌধুরী (প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব), নজিব আহমেদ (শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব), হানিফ ভূঁইয়া (র‌্যাপিড ফাউন্ডেশন) ও শওকত আজিজ রাসেল (পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব), আকরাম খান (চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা), আ জ ম নাছির উদ্দিন ( চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা), কাজী ইনাম আহমেদ (যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থা), শেখ সোহেল (খুলনা বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা), সাইফুল আলম স্বপন চৌধুরী (পাবনা জেলা ক্রীড়া সংস্থা), অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম (রংপুর বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা), খালেদ মাহমুদ সুজন  ও শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল (সিলেট জেরললা ক্রীড়া সংস্থা) 

      

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন