• ক্রিকেট

মোটরস্পোর্টে নামছেন জনসন

এক কথায় বললে- গতির সঙ্গে বসবাস তার। মিচেল জনসনের গতির সেই নেশাটা ছাড়েনি এখনও। এ বছরের আগস্টে সবরকমের ক্রিকেট থেকেই অবসর নিয়েছেন, জনসন এবার নাম লেখাচ্ছেন মোটরস্পোর্টে। ৩৬ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলার এ সপ্তাহেই বারবাগেলো রেসওয়েতে ফর্মুলা থাউজ্যান্ড সিরিজ ইভেন্টে অংশ নেবেন।  

একটা দাতব্য ইভেন্টে অংশ নেওয়ার পর থেকেই মোটরস্পোর্টের প্রতি ভালবাসাটা বেড়ে গেছে জনসনের। এরপর থেকেই অ্যারাইজ রেসিংয়ের সঙ্গে পার্থে অনুশীলন ও ডেভলপমেন্ট প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছেন তিনি। তারাই এ ইভেন্টে অংশ নিতে সাহায্য করছেন জনসনকে। জনসনের কাছে অবশ্য ব্যাপারটা ফাস্ট বোলিংয়ের চেয়ে কম রোমাঞ্চকর নয়। 

“আমি কুইন্সল্যান্ডে খেলার সময় শোয়েব আখতারের বলে ব্যাটিং করেছি। তার সেই দীর্ঘ রান-আপটা ছিল, প্রথম বলে আমি রীতিমতো কাঁপছিলাম। তার প্রথম বলটা ফুলটস ছিল, চার মেরেছিলাম। তাকে কাটিয়ে যাওয়ার সময় বলেছিলাম, “আমাকে মেরো না প্লিজ!”। এখানে চালাতে এসে আমার ঠিক একই অনুভূতি হয়েছিল।” 

কারের প্রতি ভালবাসাটা অবশ্য জনসনের পুরোনোই, “আমি সবসময়ই কার ভালবেসে এসেছি”, ওয়্যানেরু টাইমসকে বলেছেন তিনি, “আমার জন্য এটা একটা মুক্তির মতো, অবশ্যই ক্রিকেটের মতো না, তবে আমার অ্যাড্রেনালিন রাশের জন্য এটা দারুণ। আপনাকে দ্রুত যেতে হবে, অনেক টেকনিক্যাল বিষয়ে ভাবতে হব- কখন আপনি কর্নার থেকে টার্ন করবেন, ব্রেক করবেন, কারটাকে আসলে বুঝতে হবে। এটা দারুণ একটা প্রক্রিয়া, আমি এটা উপভোগ করতে শুরু করেছি।” 

২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছেন জনসন। ৭৩ টেস্টে ৩১৩ উইকেট আছে তার, অস্ট্রেলিয়ান পেসার হিসেবে তার আগে আছেন শুধু গ্লেন ম্যাকগ্রা (৫৬৩) ও ডেনিস লিলি (৩৫৫)।