• ক্রিকেট

বৃষ্টির মাঝে যা রোমাঞ্চ শাকিলের বোলিংয়েই

দ্বিতীয় স্তর
ঢাকা-ঢাকা মেট্রো, ফতুল্লা
টস- মেট্রো (ফিল্ডিং) 
৩য় দিনশেষে 
ঢাকা ১ম ইনিংস ২০৬ অল-আউট (তাইবুর ৮৮, রনি ৩০, আরাফাত সানি ৭/৫৭)
ঢাকা মেট্রো ১ম ইনিংস* ৩১২/৪ (সাদমান ১৮৬, আশরাফুল ৪৯, শাহাদাত ২/৫৪) 


প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি থেকে ১৩ রান দূরে দাঁড়িয়ে ছিলেন আগেরদিন। সাদমান সেটা পেলেন না, আগেরদিনের সঙ্গে ২ রান যোগ করতেই ফিরেছেন তিনি। শেষ ৬ উইকেট ঢাকা মেট্রো হারিয়েছে ৭৫ রানে। স্কোরটা তাই বড় হয়নি সেভাবে, তবে মিলেছে ১৮১ রানের লিড। দিনশেষে ৫০ রান তুলতে ২ উইকেট হারিয়েছে ঢাকা, তারা এখন দ্বিতীয় ইনিংসে পিছিয়ে ১৩১ রানে। ঢাকার সামনে এখনও ম্যাচ বাঁচাতে কঠিন এক কাজ অপেক্ষা করছে, তবে সেটা সহজ করে দিতে পারে আবহাওয়া, আজ দিনের খেলা হয়েছে মাত্র ঘন্টা দেড়েক। বৃষ্টির শঙ্কা আছে শেষদিনও। 

দিনের খেলা শুরু হয়েছে লাঞ্চের পর, শুরুতেই নাজমুলের বলে ক্যাচ দিয়েছেন সাদমান। মেহরাব অনুসরণ করেছেন তাকে। আবু হায়দার, শহিদুল ইসলামকে নিয়ে শেষ পর্যন্ত খেলে গেছেন জাবিদ হোসেন, তিনি অপরাজিত ছিলেন ৩২ রানে। ৩৮৭ রানে আটকে গেছে ঢাকা। 

৮০ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন পেসার সালাউদ্দিন শাকিল, দ্বিতীয় প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলতে নামা তার এটিই সেরা ফিগার এখন। দুইটি করে নিয়েছেন শাহাদাত ও নাজমুল। 

আবু হায়দার ও আরাফাত সানি এরপর ফিরিয়েছেন ঢাকার দুই ওপেনার- যথাক্রমে রনি তালুকদার ও আব্দুল মজিদকে। 


দ্বিতীয় স্তর
চট্টগ্রাম-সিলেট, কক্সবাজার 
টস- চট্টগ্রাম (ব্যাটিং) 
৩য় দিনশেষে
চট্টগ্রাম ১ম ইনিংস* ২৮২/৯ (সাদিকুর ১০৬, ইয়াসির ৮৪, শাহনূর ৩/৫৮, নাবিল ২/৩৬)


অন্য তিন ম্যাচে বৃষ্টি বাগড়া বাধিয়েছে, তবে কক্সবাজারে চট্টগ্রাম-সিলেটের ম্যাচের মতো নয়। টানা দ্বিতীয় দিন ভেসে গেছে খেলা, হয়নি একটি বলও।