• ক্রিকেট

ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলেন মুশফিক!

সিলেটে জিম্বাবুয়ে- বাংলাদেশ টেস্টের প্রথম দিন। লাঞ্চের পর গড়িয়ে গেছে বেশ কিছুটা সময়, ৪৮তম ওভার শেষ করেছেন নাজমুল ইসলাম অপু। হঠাৎ করেই দেখা গেল, এক কিশোর মাঠে ঢুকে জড়িয়ে ধরেছেন মুশফিকুর রহিমকে। ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ দলের পেসার আবু জায়েদ রাহীর কাছে ওই ঘটনা নিয়ে জানতে চাওয়া হয়েছিল। রাহী হাসতে হাসতে বললেন, হঠাৎ করে খানিকটা ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলেন মুশফিক।

বাংলাদেশের দলের খেলার মাঝে দর্শক ঢুকে পড়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। নিরাপত্তার বজ্র আঁটুনির মধ্যেও মাঝে মধ্যে ফস্কা গেরো হয়ে যায়। দুই বছর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে হুট করে মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন এক দর্শক, মাশরাফি বিন মুর্তজাকে বেঁধেছিলেন আলিঙ্গনে। সে সময় মারমুখো নিরাপত্তারক্ষীদের নিরস্ত করে মাশরাফি নিজেই মাঠ থেকে করে দিয়েছিলেন ওই দর্শককে।

সিলেটে প্রথম টেস্ট উপলক্ষে এমনিতেই নিরাপত্তার কড়াকড়ি ছিল বেশি। মাঠের চারদিকও নিরাপত্তা প্রাচীরে ঘেরা। কিন্তু তার মধ্যেই কীভাবে কীভাবে যেন ফুটো খুঁজে বের করে ফেলল ওই কিশোর। মাঠের ভেতরে ঢুকেই দে ছুট মুশফিকের দিকে। হঠাৎ করে হয়ে যাওয়ায় ঘটনার আকস্মিকতায় চমকে গিয়েছিলেন মুশফিক। লাফও দিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু খানিক পরেই বুঝতে পেরে জড়িয়ে ধরেছেন ওই কিশোরকে। মুশফিকের মুখে তখন হাসি, পাশ থেকে হাসছেন লিটন ও রাহীও। পরে অবশ্য নিরাপত্তারক্ষীরা এসে মাঠ থেকে বের করে নিয়ে গেছেন ওই কিশোরকে। ওভার বিরতির সময় হওয়ায় সরাসরি সম্প্রচারেও ঘটনাটা দেখানো হয়নি।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে রাহী বলেছেন, ‘মুশফিক ভাই বলেছে আমি তো ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম রে। ও যখন ঢুকছে আমি দেখছি ছেলেটা দৌড়ে আসছে। আমি মুশফিক ভাইকে কী বলব খুঁজে পাচ্ছিলাম না। মুশফিক ভাইয়ের কাছে আসছিল, না মিরাজের কাছে আসছিল সেটাও আমি বুঝতে পাছিলাম না। মুশফিক ভাই শুধু একটু ভয় পেয়ে গিয়েছিল।’

মুশফিক হাসলেও এই ঘটনা দেখিয়ে দেয়, এতো নিরাপত্তার মধ্যেও কেউ মাঠে ঢুকে পড়তে পারে। বিসিবির নিরাপত্তাবিভাগের জন্য বার বার এমন ঘটনা অশনী সংকেতও বটে।