• অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজ
  • " />

     

    • অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজ

    ভারতের জয়ে তরুণরা বেশি অনুপ্রেরণা পাবে: শচীন

     

    ৭১ বছরে যা কেউ পারেনি, বিরাট কোহলির দল করে দেখিয়েছে সেটাই। ইতিহাসে উপমহাদেশের প্রথম দল হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছে ভারত। ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার মনে করেন, এই সিরিজ জয় ভারতের তরুণ ক্রিকেটারদের অনেক বেশি অনুপ্রেরণা জোগাবে।

    সুনীল গাভাস্কার, কপিল দেব, শচীন, সৌরভ গাঙ্গুলি, রাহুল দ্রাবিড়, মহেন্দ্র সিং ধোনি; অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতে আসতে পারেননি কেউই। তাদের সবাইকে ছাড়িয়ে সেই কীর্তিই গড়েছেন কোহলি ও তার দল। শচীনের বিশ্বাস, এই জয়টা ভারতের ক্রিকেটের জন্য একটা বড় মাইলফলক, ‘আপনি যে বয়সেরই হন, আপনার জীবনে একজন ‘নায়ক’ দরকার । এরকম একটা জয় তাই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমার বয়স যখন দশ ছিল, ক্রিকেট খুব একটা বুঝতাম না। কিন্তু এটা জানতাম যে আমরা বিশ্বকাপ জিতেছি! এটা মাথায় রেখেই খেলতাম। এখন যারা ক্রিকেট খেলা শুরু করছে, তারাও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এই জয়টা নিয়ে ওভাবেই ভাববে।’

    চার ম্যাচে ৫২১ রান করে ভারতের সিরিজ জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন চেতেশ্বর পূজারা। পূজারার ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ শচীন, ‘পূজারা অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। এর আগেও সে এরকম পারফর্ম করেও খুব একটা কৃতিত্ব পায়নি। এবার তার ব্যাটেই ভারতের জয়ের ভিত গড়ে উঠেছে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এক সিরিজে তিনটি সেঞ্চুরি করা ছোটখাটো ব্যাপার নয়!’

    দলের পেসারদের প্রশংসায়ও পঞ্চমুখ শচীন, ‘আমাদের বেশ কয়েকজন প্রতিভাবান পেসার আছে। শুধু নতুন বল নয়, পুরানো বলেও তারা ভালো বোলিং করেছে। তারা টানা বল করে গেছে, স্পিডও ছিল ১৪০ এর কাছাকাছি। এই বোলিং লাইনআপ বিশ্বের যেকোনো পিচেই ভারতকে জয় এনে দিতে পারবে।’

    কোহলির দেখান পথে যেন বারবার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সিরিজ জেতে ভারত, শচীনের মতো ভারতের ক্রিকেট ভক্তরা নিশ্চয়ই তেমনটা চাইবেন।