• পাকিস্তান সুপার লিগ
  • " />

     

    পাকিস্তানে যাচ্ছেন না ডি ভিলিয়ার্স

    পিএসএল শুরুর আগেই তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, এবারের পাকিস্তান পর্বের সব ম্যাচেই দেখা যাবে তাকে। লাহোর কালান্দার্সের হয়ে শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানে যাওয়া হচ্ছে না এবি ডি ভিলিয়ার্সের। পিঠের ইনজুরির কারণে পাকিস্তান পর্বের আগেই দেশে ফিরবেন তিনি।

    প্রায় দশ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নির্বাসিত পাকিস্তানে ক্রিকেট ফেরাতে অনেক চেষ্টাই চালাচ্ছে পিসিবি। এর অংশ হিসেবেই গত দুই মৌসুম ধরে পাকিস্তানে পিএসএলের ম্যাচ আয়োজন করা হচ্ছে । ডি ভিলিয়ার্সের মতো ক্রিকেটার পাকিস্তানে খেলতে গেলে সেটা দেশের ক্রিকেটের জন্য বড় পাওয়া হবে বলেই ধারণা করছিলেন সবাই। এবি নিজেই জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানে খেলার ব্যাপারে দারুণ আগ্রহী তিনি।

    তবে পিঠের ইনজুরি সেটা আর হতে দিচ্ছে না। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি করাচী কিংসের বিপক্ষে ম্যাচে পিঠে ব্যথা অনুভব করছিলেন। এরপর ডাক্তার তাকে বিশ্রাম নিতে বলেছিলেন। ধারণা করা হচ্ছিল, পাকিস্তান পর্বেই দলে ফিরবেন তিনি। তবে লাহোর কালান্দার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এবিকে পাকিস্তানে খেলতে দেখা যাবে না, ‘লাহোর কালান্দার্স ও পাকিস্তানের ক্রিকেটভক্তদের জন্য এটা বড় দুঃসংবাদ। এবি পাকিস্তান পর্বে খেলতে পারবে না। তার পরিবর্তে অন্য কাউকে দলে আনা হবে কিনা, সেটা পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।’

    পিএসএলের এই মৌসুমে সাত ম্যাচে এবির রান ২১৮, গড় ৫৪.৫০। পাকিস্তানে যেতে না পেরে হতাশ ডি ভিলিয়ার্সও, ‘পাকিস্তানের দর্শকের সামনে খেলতে না পেরে আমি খুবই হতাশ। ডাক্তার আমাকে বলেছে কমপক্ষে দুই সপ্তাহ বিশ্রাম নিতে। এজন্যই করাচী যেতে পারছি না। আশা করি আগামী মৌসুমেও পিএসএলে খেলবো। পাকিস্তানে যেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরে, এজন্য আমিও ভূমিকা রাখতে চাই।’

    এদিকে পিএসএলের পাকিস্তান পর্বের যে তিনটি ম্যাচ লাহোরে হওয়ার কথা ছিল, সেটা সরিয়ে আনা হয়েছে করাচীতে। ভারত-পাকিস্তানের মাঝে চলমান সংকটের কারণে লাহোর ও তার আশেপাশের প্রায় সব বিমানবন্দরই বেশ কয়েকদিন ধরে বন্ধ আছে। নিরাপত্তার স্বার্থেই তাই লাহোরের ম্যাচগুলো হবে করাচীতে। লাহোর কালান্দার্সের শেষ দুটি ম্যাচও হবে সেখানে। সব মিলিয়ে ফাইনালসহ পিএসএলের শেষ আটটি ম্যাচ হবে করাচীতে।