• আইপিএল ২০১৯
  • " />

     

    আফ্রিদিকে মানসিক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবেন গম্ভীর

    নিজের আত্মজীবনী প্রকাশের পর বেশ আলোচনায় এসেছেন সাবেক পাকিস্তান অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। সেখানে সাবেক ভারতীয় ওপেনার গৌতম গম্ভীরকে খানিকটা খোঁচা দিয়ে আফ্রিদি বলেছিলেন, গম্ভীরের এমন কোন রেকর্ড ছিল না, কিন্তু সে তাও ‘ভাব’ নিয়ে থাকত! আর আফ্রিদির এমন কথায় স্বভাবতই চটেছেন গম্ভীর। এক টুইটে পাল্টা জবাব দিয়ে গম্ভীর বলেছেন, আফ্রিদিকে তিনি মানসিক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতে চান!

    ২০০৭ সালে কানপুরে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের সময় রান নিতে গিয়ে আফ্রিদির সাথে ঠোকাঠুকি হয় গম্ভীরের। বেশ কিছুক্ষণ চলে কথা কাটাকাটিও। পরে এজন্য জরিমানাও গুণতে হয়েছিল দুজনকে। নিজের আত্মজীবনীতে আফ্রিদি লিখেছেন, ‘গম্ভীর মনে করে ও ডন ব্র্যাডম্যান আর জেমস বন্ডের ক্রস। করাচিতে এরকম লোককে আমরা বলি 'ফালতু'। আমি হাসিখুশি ইতিবাচক লোক পছন্দ করি। আগ্রাসী হলেও আমার সমস্যা নেই, তবে আপনাকে ইতিবাচক হতে হবে। কিন্তু গম্ভীর ওরকম ছিল না। কিছু দ্বন্দ্ব আছে ব্যক্তিগত, আবার কিছু পেশাদার। গম্ভীরের সঙ্গে প্রথমটাই ছিল। তার আচরণের সমস্যা ছিল। ব্যক্তিত্ব বলতে কিছু ছিল না তার। সাহসী ক্রিকেটারও তাকে বলা যাবে না কোনোভাবেই। এমন বড় কোনো রেকর্ডও ছিল না তার, তবে 'ভাব' ছিল অনেক বেশি।’  

    আফ্রিদির এমন মন্তব্য একদমই পছন্দ হয়নি গম্ভীরের। গম্ভীর তার টুইটে বলেছেন, ভারতে এলে আফ্রিদিকে মানসিক চিকিৎসক দেখাতে চান তিনি, ‘আফ্রিদি, তুমি তো অদ্ভুত মানুষ! যদি তোমাকে ভারতের ভিসা দেওয়া হয়, তাহলে আমি নিজেই তোমাকে মানসিক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবো।’

     

     

    গম্ভীরের এমন কথার জবাবে অবশ্য আফ্রিদি এখনো কিছু বলেননি।