• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    আবার চোটের ধাক্কা অস্ট্রেলিয়ায়, এবার বিশ্বকাপ শেষ খাওয়াজার

    সেমিফাইনালের আগে আরও একটি ধাক্কা খেল অস্ট্রেলিয়া, এবার উসমান খাওয়াজাকে হারিয়ে ফেললো তারা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গ্রুপপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পাওয়া খাওয়াজা বিশ্বকাপে আর খেলতে পারবেন না বলে নিশ্চিত করেছেন অস্ট্রেলিয়ান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। তার জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে ম্যাথু ওয়েডকে, অবশ্য আইসিসির ক্লিয়ারেন্সের অপেক্ষায় আছে এ সিদ্ধান্ত।

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে রানতাড়ায় ১০ রান দূরে আটকে যাওয়া ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট নিয়ে উঠে গিয়েছিলেন খাওয়াজা। এরপর আবার নেমেছিলেন ব্যাটিংয়ে। তবে তার সেরে উঠতে তিন-চার সপ্তাহ লাগবে বলে জানিয়েছেন ল্যাঙ্গার, “উসমানের হ্যামস্ট্রিংয়ের টান সেরে উঠতে তিন থেকে চার সপ্তাহ লাগবে। এটা বাজে একটা ব্যাপার, তবে অ্যাশেজের আগে তাকে ঠিক করতে তুলতে আমাদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।” 

    খাওয়াজার আগে বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেছে শন মার্শেরও। নেটে ব্যাটিং অনুশীলনের সময় প্যাট কামিন্সের বলে ডানহাতে চোট পেয়েছিলেন তিনি। তাদের জন্য দুঃখপ্রকাশ করছেন ল্যাঙ্গার, “খুবই দুঃখের একটা ব্যাপার। আমরা যেভাবে খেলছিলাম, তার গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিল সে, শন মার্শের মতোই। আমার খারাপ লাগছে, সে সেমিফাইনাল মিস করবে।” 

    খাওয়াজা ছাড়াও চোট নিয়ে শঙ্কা আছে অলরাউন্ডার মার্কাস স্টোয়নিসকে নিয়েও। ফিল্ডিংয়ের সময় হাতে চোট পেয়েছিলেন তিনি, এরপর করেছেন মাত্র তিন ওভার বোলিং। খাওয়াজা-স্টোয়নিসের ব্যাক-আপ হিসেবে ওয়েড ও মিচেল মার্শকে ডেকে পাঠিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এর আগে শন মার্শের জায়গায় নেওয়া হয়েছিল পিটার হ্যান্ডসকমকে। 

    “মার্কাসেরও একই অবস্থা, সে টান খেয়েছে। তাকে নিয়ে এই মুহুর্তে আমরা কাজ করছি, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে হবে”, বলেছেন ল্যাঙ্গার। 

    “চূড়ান্ত একাদশে না হলেও স্কোয়াডে ম্যাথু ওয়েড আসছে। সে দারুণ ফর্মে আছে, গত ১২ মাস সময় ধরে সে দারুণ ফর্মে আছে। দেশে ওয়ানডে ক্রিকেটে দুটি সেঞ্চুরি করেছে, দারুণ টাচে আছে সে। আর স্টোয়নিসের স্ট্যান্ডবাই হিসেবে মিচ মার্শ আসছে”, জানিয়েছেন ল্যাঙ্গার। 

    বিশ্বকাপের মুহুর্তে চোটের কারণে একাধিক ক্রিকেটারকে হারিয়ে ফেলে হতাশ হলেও এমন পরিস্থিতি অস্ট্রেলিয়ার এই দলের জন্য নতুন নয় বলে বলছেন ল্যাঙ্গার, “অবশ্যই এটা হতাশাজনক। তবে এটা খেলা, সব দলেরই চোট থাকবে। কখনোই চোট আপনার ভাল লাগবে না, কাজের মুহুর্তে তো আরও নয়। তবে ঠিক আছে, আমরা এটা সামাল দিব। আমি সবসময়ই বলে এসেছি, আমরা এসব সামাল দেব, গত এক বছরে এটা করে এসেছি আমরা। যে কোনও পরিস্থিতিতে, তা দলের জন্য যতো কঠিনই হোক না কেন, আমরা সামাল দেব।”