• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    অস্ট্রেলিয়ানদের খোঁচাকে পাত্তা দেন না রুট

    অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচে মাঠের লড়াইয়ের সাথে কথার লড়াইটাও কম হয় না। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের আগে মনস্তাত্ত্বিক লড়াইটা শুরু করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার নাথান লায়ন। সেমিতে ইংল্যান্ড ফেভারিট, অস্ট্রেলিয়া আন্ডারডগ; লায়ন বলেছিলেন এমনটাই। এজবাস্টনের সেমির আগে লায়নের এমন কথার জবাবে ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জো রুট বলছেন, অস্ট্রেলিয়ানদের এসব কথায় একদমই কান দেন তিনি। 

    অস্ট্রেলিয়ানদের কথায় পাত্তা না দিয়ে নিজেদের প্রস্তুতিতেই মন দিতে চান রুট, ‘লায়ন অনেক সময়ই অনেক কথা বলেছে। এসবে আসলে পাত্তা দিয়ে লাভ নেই। অস্ট্রেলিয়ানদের এসব বহু বছর ধরেই চলে আসছে। যখন আপনি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবেন, তখন এরকম কথা হবেই। এভাবেই তাঁরা নিজেদের প্রস্তুত করে। সত্যি বলতে আমি এসবের মাঝে নিজেকে জড়াতে চাই না। মাঠে ও মাঠের বাইরে একটু আধটু কথার লড়াই হবেই। নিজেদের প্রস্তুত করার ব্যাপারেই বেশি মনযোগী আমি।’ 

    বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির পরেও অস্ট্রেলিয়ানদের স্লেজিং আগের মতোই আছে, দাবি রুটের, ‘আমার মনে হয় না কিছুর পরিবর্তন হয়েছে। হয়ত বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা তাদের দলের ভেতরের পরিবেশে কিছুটা পরিবর্তন এনেছে। কিন্তু যারা তাদের প্রতিপক্ষ তাদের প্রতি আচরণ একইরকম আছে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলাটা বরাবরই বিশেষ উপলক্ষ। বাড়তি প্রত্যাশার চাপও থাকে। এজন্যই লড়াইটা উপভোগ্য হয়।’ 

    অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সাম্প্রতিক সময়ে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে আছে ইংল্যান্ড। গ্রুপ পর্বে অজিদের কাছে হারলেও এই পরিসংখ্যানটাই বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে রুটদের, ‘শেষ এগারো ম্যাচের দিকে যদি তাকান, আমরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নয়টিতেই জিতেছি। গত চার বছর ধরে আমাদের দলটা একসাথে খেলছে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অনেক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও আছে। দুশ্চিন্তার তাই খুব বেশি কারণ নেই। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গত দেড় বছরে অনেক সাফল্য এসেছে। এই আত্মবিশ্বাস নিয়েই আমরা সেমিতে মাঠে নামব।’