• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    বিশ্বকাপের বর্তমান ফরম্যাটে সন্তুষ্ট নন কোহলি

    শীর্ষে থেকেই গ্রুপ পর্ব শেষ করেছিল ভারত। সেমিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফেভারিট ছিলেন বিরাট কোহলিরাই। শেষ পর্যন্ত কিউইদের কাছে ১৮ রানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হয়েছে তাদের। ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে কোহলি বলছেন, বিশ্বকাপের ফরম্যাট নিয়ে খুশি নন তিনি। আগামী বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আইপিএলের মতো কোয়ালিফায়ার, এলিমিনেটর পদ্ধতি চালু করার পক্ষে কোহলি। 

    ২০০৭ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল ভারতকে। এর প্রভাবটা পড়েছিল বিশ্বকাপ বাণিজ্যেও। ভারত যেন বেশি থেকে বেশি ম্যাচ খেলতে পারে, পরের বিশ্বকাপ থেকে বিসিসিআইয়ের চেষ্টা ছিল এমনটাই। এবার ফিরিয়ে আনা হয়েছিল ১৯৯২ সালের ফরম্যাট, যেখানে সব দল কমপক্ষে নয়টি করে ম্যাচ খেলেছে। গ্রুপ পর্বে মাত্র একটি ম্যাচ হেরেছিল ভারত। সেই ভারতকেই বিদায় নিতে হলো সেমি থেকে।

    আইপিএলে গ্রুপ পর্বের শীর্ষে থাকা দুই দল প্রথম কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হয়। সেই ম্যাচে হারলেও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে জিতে ফাইনালে ওঠার আরেকটি সুযোগ থাকে তাদের সামনে। ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে এরকম কিছুই দেখতে চান কোহলি, ‘হয়তো সেরকম কিছু হলেই ভালো হয়। গ্রুপ পর্বে শীর্ষে থাকার তো কোন সুবিধা পাওয়াই উচিত। এটা আসলে ভেবে দেখে উচিত, এটা খুবই যৌক্তিক পয়েন্ট। এমন পদ্ধতি চালু করা হতেও পারে! আপনি দারুণ ক্রিকেট খেলে গ্রুপের শীর্ষে থেকে সেমিতে উঠবেন, আর একটা ম্যাচ খারাপ খেলেই বাদ পড়বেন, এটা খুবই দুঃখজনক। কিন্তু এই মুহূর্তে এটা মেনে নেওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই।’ 

    গ্রুপের শীর্ষে থেকে সেমিতে উঠেও ফাইনাল খেলতে না পারার আক্ষেপটা পোড়াচ্ছে কোহলিকে, ‘আগের ম্যাচগুলোতে আপনি কী করেছেন, সেটা আসলে মুখ্য বিষয় না। প্রতিটা দিনই নতুন। সেদিন যদি আপনি ভালো না খেলেন, বাড়ি ফিরতে হবে। আমি খুবই হতাশ। টুর্নামেন্টজুড়েই আমরা দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছি। ৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেটের জন্য আমাদের বাদ পড়তে হচ্ছে, এটাই সবার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে।’