• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    হোটেলে নারী অতিথিকে হেনস্তা করে এক বছর নিষিদ্ধ আফগান বোলার

    বিশ্বকাপের মাঝপথে ‘অজানা’ কারণে তাঁকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছিল আফগানিস্তান। পরবর্তীতে জানা যায়, আফগান পেসার আফতাব আলম হোটেলের এক নারী অতিথির সাথে বাজে ব্যবহার করেছিলেন। বিশ্বকাপের ওই ঘটনার জন্য এবার বড় শাস্তি পেতে হচ্ছে তাঁকে। আগামী এক বছর সব ধরনের ক্রিকেট থেকে আফতাবকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আফগান বোর্ড। তাঁর সাথে বোর্ডের চুক্তিও স্থগিত করা হয়েছে।

    বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের হয়ে তিনটি ম্যাচে খেলছেন আফতাব, নিয়েছেন চার উইকেট। ২২ জুন ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পর ঘটে ওই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। সাউদাম্পটনের হোটেলে ফেরার পর এক নারী অতিথির সাথে খারাপ ব্যবহার করেন আফতাব। সেই ঘটনার জের ধরে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ২৩ জুন আইসিসির অ্যান্টি করাপশন কমিটির বৈঠকে উপস্থিত না থাকায় পরের দুই ম্যাচের জন্য তাঁকে নিষিদ্ধ করেন কোচ ফিল সিমন্স। পরবর্তীতে জানা যায়, সেদিন দলের সাথে হোটেলে না থেকে লন্ডনে নিজের এক আত্মীয়র বাসায় ছিলেন আফতাব। 

    ২৭ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়, আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে আফতাবকে। কাবুলে আফগান বোর্ডের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী এক বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করা হবে আফতাবকে। একই সঙ্গে বোর্ডের সাথে তাঁর চুক্তিও স্থগিত থাকবে। 

    নারী অতিথির সাথে বাজে ব্যবহারের আগেও এই বিশ্বকাপে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন আফতাব। ১৬ জুন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের দিন স্টেডিয়ামে কিছু বন্ধুবান্ধব নিয়ে এসেছিলেন তিনি। তাদের সবাইকে ভিআইপি দর্শক হিসেবে মাঠে ঢুকতে দেওয়ার জন্য ওল্ড ট্রাফোর্ডের মাঠ কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেন তিনি। এক পর্যায়ে অনেকটা জোর করেই একটি হসপিটালিটি রুমে ঢুকে পড়েন তিনি। তাঁকে সেখান থেকে বারবার বের হতে বললেও রাজি হননি। নিরাপত্তাকর্মীরা আসার পর তাঁর বন্ধুরা সেখান থেকে বেরিয়ে এলেও আফতাব কিছুতেই বের হতে রাজি হচ্ছিলেন না। বহু বাকবিতন্ডার পর আফতাব সেখান থেকে চলে আসেন।