• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    'বিশ্বকাপ নিয়ে হাজার কথা বললেও ফেরত আসবে না'

    বিশ্বকাপ পর্ব শেষ আগেই। দুঃস্মৃতিটা নিয়ে পড়ে থাকারও অবশ্য উপায় নেই, শ্রীলংকা সিরিজের জন্য বাংলাদেশের তোড়জোর যে শুরু হয়ে গেছে এর মধ্যেই। পরশু শ্রীলংকার উদ্দেশে রওনা দেবে দল। তার আগে আজ মিরপুরে ছিল অনুশীলন। সেখানেই মোসাদ্দেক হোসেন বললেন, বিশ্বকাপ নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না বাংলাদেশ দলকে।

    মের প্রথম সপ্তাহে আয়ারল্যান্ড সফর দিয়ে শুরু। এরপর বিশ্বকাপসহ সব মিলে দুই মাসেরও বেশি সময় দেশের বাইরে কেটেছে সবার। বিশ্বকাপটা কেমন গেছে, এই প্রশ্নের জবাবে মোসাদ্দেক যেমন এক লাইনেই বললেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি আমাদের একটা অ্যাভারেজ বিশ্বকাপ গেছে।’

    তবে সামনে নতুন সিরিজ, নতুন চ্যালেঞ্জ। বিশ্বকাপের ভাবনা একপাশেই সরিয়ে রাখছে বাংলাদেশ, ‘চিন্তা করতে গেলে অনেক কিছু। তখন অনেক বেশি কিছু আপনার চিন্তায় চলে আসবে। আবার চিন্তা না করলে তেমন কিছু না। বিশ্বকাপি সবকিছু না, বিশ্বকাপ শেষ মানেই সব শেষ হয়ে গেছে। আমাদের ক্রিকেটই খেলতে হবে দিন শেষে। তাই আমি মনে করি এখন বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের চিন্তা করার খুব বেশি কিছু আছে। বিশ্বকাপ শেষ, এখন আমরা মনে করি না আমরা এটা নিয়ে বেশি চিন্তিত। কারণ যেটা শেষ হয়ে গেছে হাজার কথা বললেও সেটা আর ফেরত আসবে না। সামনে আমাদের যে সিরিজ আছে সেটার ওপর ফোকাস করাই আমাদের জন্য ভালো।’

    শ্রীলংকা সিরিজের আগে নিজেদের বিশ্রামও ভালোমতোই হয়েছে বলে মনে করছেন মোসাদ্দেক, ‘আসলে আপনি যদি হিসেব করেন তাহলে দেখেন আমরা প্রিমিয়ার লিগ শেষ করেছি প্রায় দেড় দুই মাসের মতো। এরপর আয়ারল্যান্ড থেকে শুরু করে ৬০-৭০ দিনের মতো ছিলাম। আমাদের সবার একটা বিশ্রামের দরকার ছিল। সাত-আট ভালো একটা বিশ্রামের দরকার ছিল, সেটা আমরা পেয়ে এবার অনুশীলনে যোগ দিয়েছি।’

    শ্রীলংকা নিজেরাও যাচ্ছে পালাবদলের ভেতর দিয়ে। গুঞ্জন উঠেছে, খুব শিগগির বদলে ফেলা হচ্ছে কোচিং স্টাফ। মোসাদ্দেক অবশ্য অভিজ্ঞতার দিক দিয়ে এগিয়ে রাখছেন বাংলাদেশকেই, ‘আপনি দেখেন, আমরা বোলিং ব্যাটিং দুই দিক দিয়েই ভালো অবস্থানে আছি। অভিজ্ঞতার দিক দিয়েও ভালো দিকে আছি। এই দিকে আমরা অন্য দলের চেয়ে এগিয়ে থাকি সব সময়। অন্য দলগুলোর সাথে অভিজ্ঞতা তুলনা করলে আমাদের অভিজ্ঞতাই সবচেয়ে বেশি।’

    কতটা এগিয়ে আছে, সেই প্রমাণ মাঠেই নিতে হবে বাংলাদেশকে। ২০ জুলাই শ্রীলংকার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পর ২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই তিনটি ম্যাচ