• অ্যাশেজ ২০১৯
  • " />

     

    চুক্তি থেকে বাদ পড়ার পর টেস্ট ক্রিকেট থেকে 'দূরে সরে' যাচ্ছেন মইন আলি

    টেস্ট ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের বিরতিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার মইন আলি। এর আগে ইসিবির নতুন ঘোষিত চুক্তিতে টেস্ট ম্যাচের জন্য জায়গা হয়নি মইনের। যদিও তিনি ইংল্যান্ডের পরিকল্পনায় ভালভাবেই আছেন বলে জানানো হয়েছিল। তবে আপাতত নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন মইন, এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও অনিশ্চিত তিনি।

    অবশ্য মইন বলছেন, চুক্তির কোনও প্রভাব তার এ সিদ্ধান্তে নেই, টেস্টের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তও নেননি তিনি এখনও। অ্যাশেজের প্রথম টেস্টের পর বাদ পড়েছিলেন মইন, এরপর থেকে ব্যস্ত আছেন নিজ কাউন্টি উরস্টারশায়ার নিয়েই। এর আগে গত শ্রীলঙ্কা সফরে ৩-০ ব্যবধানে জয়ের সিরিজে জ্যাক লিচের সঙ্গে তার স্পিন-জুটি দারুণ কার্যকরী ছিল ইংল্যান্ডের জন্য। তবে ঘরের মাটিতে তার বদলে একমাত্র স্পিনার হিসেবেই লিচকেই বেছে নিয়েছিল ইংল্যান্ড। 

    “আমি পরিবারের সঙ্গে কিছু সময় কাটাতে চাই। পাঁচ বছর ধরে ইংল্যান্ডের হয়ে খেলছি, ব্যাপারটা কঠিন। টেস্ট ক্রিকেটে তীব্রতাটা বেশি থাকে, এ কারণেই আমার এই বিরতি নেওয়া। এরপর দেখা যাক, কী ঘটে”, ইএসপিএনক্রিকইনফোকে বলেছেন মইন। 


    মইন আলিকে নিয়ে পড়ুন- ইংলিশ ক্রিকেটের অন্য 'দাড়িওয়ালা'


    অবশ্য টেস্ট ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা নিয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি তিনি, “ভবিষ্যতে টেস্ট ক্রিকেট খেলার সম্ভাবনা নাকচ করে দিচ্ছি না আমি এখনই। অনেক কথা বলেছি, চিন্তা-ভাবনা করেছি এটা নিয়ে। নিজের ব্যাটারি আবার চার্জ করতে নিজেকে একটু সময় দিতে চাই, এরপর দেখতে চাই কী ঘটে।” 

    ২০১৪ সালে অভিষেকের পর থেকে এই প্রথম কেন্দ্রীয় চুক্তির কোনও পর্যায় থেকে বাদ পড়লেন তিনি। অবশ্য মইন বলছেন, সেসব নিয়ে চিন্তা নেই তার, “কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়াটা হতাশার, তবে আমি এটা নিয়ে ভাবছি না। ক্রিকেট কখনোই আমার কাছে টাকার ব্যাপার ছিল না। আমি সবসময়ই নিজের বিশ্বাসের ওপর নির্ভর করেছি, এবং বিশ্বাস করেছি-- সব ঠিকঠাক হয়ে যাবে।” 

     

     

    এদিকে ইসিবির ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট অ্যাশলি জাইলস বলেছেন, মইনের বিরতি নেওয়ার ব্যাপারটা বুঝতে পারছেন তিনি, “শুধু মইন নয়, সবার জন্যই এ গ্রীষ্মটা দারুণ চ্যালেঞ্জিং ছিল। বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজ অনেকের ওপরই মানসিক ও শারীরিকভাবে প্রভাব ফেলেছে। তার হয়তো এসব থেকে একটু দূরে থেকে আবার তরতাজা হওয়ার দরকার।” 

    আপাতত মইনের ভাবনায় ভাইটালিটি ব্লাস্ট টি-টোয়েন্টিতে নিজ দলকে শিরোপা জেতানো। ২১ সেপ্টেম্বর ফাইনাল ডে-তে এজবাস্টনে শিরোপা ধরে রাখার মিশনে নামবে মইনের দল উরস্টারশায়ার র‍্যাপিডস।