• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    দেম্বেলের জন্য চিকিৎসকদের কাছে সুয়ারেজের মিনতি

     

    চোটের অভিশাপ যেন পিছুই ছাড়ছে না উসমান দেম্বেলের। বার্সেলোনায় আসার পর থেকেই একের পর এক চোটে পড়ছেন। কাল চ্যাম্পিয়ন লিগে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে উরুতে চোট পেয়ে ফোঁপাতে ফোঁপাতে মাঠ ছেড়েছেন দেম্বেলে। বার্সা সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ তাই ক্লাবের চিকিৎসকদের কাছে মিনতিই করেছেন, দেম্বেলের জন্য ক্লাবের চিকিৎসকেরা যেন একটা উপায় খুঁজে বের করেন।

    ২০১৭ সালে বার্সায় এসেছিলেন। এরপর থেকে সাতবার চোটে পরেছেন দেম্বেলে। এই মৌসুমেও ছয় ম্যাচ এর মধ্যে চোটের জন্য বসে থাকতে হয়েছে বাইরে। কাল যখন আঘাত পেলেন, মাঠে হতাশায় বুট প্রায় ছুঁড়েই মেরেছিলেন। এরপর স্ট্রেচার আনা হলেও শেষ পর্যন্ত খোঁড়াতে খোঁড়াতে মাঠ ছেড়ছেন। কিন্তু মুখ থেকেই বোঝা যাচ্ছিল, ভেঙে পড়েছেন একদম। প্রায় ভেজা চোখেই শেষ পর্যন্ত মাঠ ছেড়েছেন। তাঁর জায়গায় নেমে আঁতোই গ্রিজমান অবশ্য ভালো খেলেছেন, গোলও পেয়েছেন।


    চোটে যতবার ছিটকে গেলেন দেম্বেলে

    সেপ্টেম্বর ২০১৭(১০৬ দিন)

    জানুয়ারি ২০১৮ (২৬ দিন)

    জানুয়ারি ২০১৯ (১৮ দিন)

    মার্চ ২০১৯ (২৬ দিন)

    মে ২০১৯ (৪২ দিন)

    আগস্ট ২০১৯ (৩৪ দিন)

    সেপ্টেম্বর ২০১৯ (৩ দিন)

        নভেম্বর ২০১৯-?


    তবে দেম্বেলেকে নিয়ে বার্সার দুশ্চিন্তা বাড়বেই। বার বার কেন চোটে পড়তে হচ্ছে তাঁকে? সুয়ারেজও তাই ক্লাবের চিকিৎসকদের আহবান জানিয়েছেন, ‘চিকিৎসকদের একটা উপায় খুঁজে বের করতেই হবে। সুস্থ হয়ে ওঠার পরেই আবার চোটে পড়ল সে। আশা করি সে শিগগির মাঠে ফিরবে।’

    বার্সা ডিফেন্ডার ক্লেমেন্ত লেংলেরও সতীর্থের জন্য খারাপ লাগছে অনেক, ‘খুবই দুঃখজনক ব্যাপারটা, কারণ সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে নেমেই সে চোট পেল। ফুটবলটা ওর হৃদয়ে, সেজন্য সে কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছেড়েছে। না খেলতে পারলে আপনার খারাপই লাগবে।’

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন