• বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ
  • " />

     

    বুরুন্ডিকে হারিয়ে শিরোপা ধরে রাখল ফিলিস্তিন

    বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ফাইনালে বুরুন্ডিকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা ধরে রেখেছে ফিলিস্তিন। ফাইনালে ম্যাচের ২৬ মিনিটের ভেতর ৩ গোল দিয়েই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছিল গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। দ্বিতীয়ার্ধে বুরুন্ডি এক গোল শোধ করলেও ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাওয়া ফিলিস্তিনকে আর ঝামেলায় ফেলতে পারেনি বুরুন্ডি।

    শিরোপা ধরে রেখে নতুন রেকর্ড গড়েছে ফিলিস্তিন।  এর আগে মালয়েশিয়া সর্বোচ্চ দুইবার বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের শিরোপা জিতেছিল। এখন সর্বোচ্চ শিরোপার রেকর্ডে নাম উঠেছে ফিলিস্তিনেরও। ২০১৮ সালে তাজিকিস্তানকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফিলিস্তিন জিতেছিল এই টুর্নামেন্টের শিরোপা।



    বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচের ১০ মিনিটেই দুই গোল করেছে ফিলস্তিন। প্রথম গোলটি করেছিলেন খালেদ সালেম। ৩ মিনিটের ওই গোলের পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সামেহ মারাবা। সেমিফাইনালে বাংলাদেশকে হারানো বুরুন্ডি ফাইনালের আগে বিশ্রাম পেয়েছিল মাত্র একদিন। তাদের চেয়ে আরও একদিন বেশি বিশ্রাম পাওয়া ফিলস্তিনের সামনে এর পর আর দাঁড়াতেই পারেনি বুরুন্ডি। ২৬ মিনিটে লাইখ খারুব তৃতীয় গোলটি করে ফাইনালের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি এনে দেন ফিলিস্তিনকে। 

    এনদিকুমানা আসমান দ্বিতীয়ার্ধে এক গোল শোধ দেওয়ার পরও তাই ম্যাচ জয়ের জন্য সেটা যথেষ্ট হয়নি বুরুনদীর জন্য। পুরো টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ১১ গোল করলেও বুরুন্ডির তাই আর শিরোপা ছোঁয়া হয়নি।

    ফিলিস্তিন টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল বাংলাদেশকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে। এর পর শ্রীলঙ্কাকেও একই ব্যবধানে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে ওঠে তারা। সেইশেলসকে ১-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল ফিলিস্তিন। 

    দুই হ্যাটট্রিকসহ মোট ৭ গোল করে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বুরুন্ডির এনিশিমিরিমানা জসপিন।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন