• বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর
  • " />

     

    চোট কাটিয়ে ম্যাচ খেলার মতো ফিট মুশফিক-ইমরুল

    মুশফিকুর রহিম ও ইমরুল কায়েসের কেউই পাকিস্তান যাচ্ছেন না। মুশফিক নিরাপত্তাজনিক কারণে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন, আর ইমরুল নেই চোটের কারণে। অবশ্য চোট ছিল মুশফিকেরও। দুজনই হ্যামস্ট্রিং ও কাফ মাসলের সমস্যায় পড়েছিলেন। দল যেদিন পাকিস্তান যাচ্ছে, সেদিনই ইমরুল খবর পেলেন, ম্যাচ খেলার জন্য ফিট তিনি। ফিট হয়ে উঠেছেন মুশফিকও। 

    বিপিএল খেলার সময়ই চোট পেয়েছিলেন ইমরুল, বিপিএলের পর চোটে পড়েন মুশফিক। মঙ্গলবার বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরি বলেছেন, প্রত্যাশিত সময়ের আগেই সেরে উঠেছেন ইমরুল। 

    “মুশফিক ও ইমরুল, ওরা হ্যামস্ট্রিং ও কাফ মাসলের সমস্যা নিয়ে কিছুদিন ভুগছিল। এর মধ্যে পুনর্বাসনও চলছিল। মুশফিকের চোট গ্রেড ওয়ান হওয়ার কারণে আমরা আশা করছিলাম ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে সে সুস্থতা ফিরে পাবে। কিন্তু ইমরুলের জন্য আরো বেশি সময়ের ধারণা ছিলো। আজ ওদের দুজনের টেস্ট হলো এবং সন্তোষজনকভাবে দুজনই ভালো করেছে। দুজনই খেলার জন্য ফিট হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন। সামনের ম্যাচগুলিতে অংশগ্রহণের জন্য তাদের কোনো বাধা নেই।”

    চোটের কারণে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে নেই ওপেনার সাদমান ইসলাম। তার সমস্যা কবজিতে। আর কাঁধের চোট নিয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ থেকে দেশে ফিরেছেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরি। দুজনকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য অস্ট্রেলিয়া পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি, “(এই) দুজনের ইনজুরি ম্যানেজমেন্টের ব্যাপারে আমরা ভুগছিলাম। বোর্ড সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য আমরা যাতে অস্ট্রেলিয়াতে যোগাযোগ করি। সেটা আমরা এর মধ্যেই শুরু করেছি ওদের সঙ্গে। সব ঠিকঠাক থাকলে আশা করছি এই মাসের শেষের দিকে আমরা হ্যান্ড সার্জন ও শোল্ডার সার্জনের কাছে পাঠাতে পারবো।”

     আর চোট নিয়ে বেশ লম্বা সময় ধরেই ভুগছেন পেসার। ‘মিনিসকাসের’ চোট থেকে সেরে ওঠার পরপরই আবার সাইড-স্ট্রেইনের সমস্যায় পড়েছেন তিনি, “ খালেদ মিনিসকাসের চোটের পুনর্বাসন শেষ করে প্রায় পুরো ফিটনেস ফিরে পেয়েছিলো, কিন্তু ঠিক তখনই দুর্ভাগ্যজনকভাবে ওর সাইড স্ট্রেইনের সমস্যা হয়েছে। ফলে পুনর্বাসন কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে। আশা করছি আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যেই, অর্থাৎ ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে ফিটনেস ফিরে পাবে সে।”