• বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্কুল ক্রিকেট
  • " />

     

    প্রাইম ব্যাংক স্কুল ক্রিকেটে অগ্রণী স্কুলের বড় জয়

    প্রাইম ব্যাংক প্রেজেন্টস বঙ্গবন্ধু ন্যাশনাল স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্টে আজ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে লালমনিরহাটে পাখাল পুলিশ লাইনস হাইস্কুলের মেহেদি হাসান মাসুম একাই গুড়িয়ে দিয়েছেন পূর্ব শাপানা হাইস্কুলকে। মিডল অর্ডারে রীতিমত ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছেন তিনি। করেছেন হ্যাটট্রিকও। ৭ ওভার বল করে মাত্র ১৪ রানে সে তুলে নেয় পূর্ব শাপানা হাইস্কুলের ৬ জন ব্যাটসম্যানকে। অধিনায়ক জান্নাতুল আদম (২২) চেষ্টা করেছিলেন বিপর্যয় সামলে উঠার, কিন্তু অপর প্রান্তে অন্যদের ক্রমাগত যাওয়া আসায় বেশি কিছু আর করতে পারেনি সে। মাত্র ২৪.৪ ওভার খেলে ৮২ রানেই অলআউট হয় পূর্ব শাপানা হাইস্কুল। জান্নাতুল আদম বাদে ওপেনার রবিউল ইসলামই (১৬) শুধু দুই অংক ছুঁতে পেরেছেন। জবাবে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে ১৪.৩ ওভারেই লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যায় পাখাল পুলিশ লাইনস হাইস্কুল। ওপেনার আশিকুর রহমান করেন সর্বোচ্চ ৪০ রান। বল হাতে উজ্জ্বল মেহেদি হাসান মাসুম ব্যাট হাতেও ছিলেন সফল। ওয়ান ডাউনে নেমে করেছেন অপরাজিত ২৮ রান। অনুমিতভাবেই ম্যাচসেরার পুরষ্কার পায় মেহেদি হাসান মাসুম।

    হ্যাটট্রিক সহ ৬ উইকেট পেয়েছেন মেহেদি হাসান মাসুম

    গাজীপুরে সেঞ্চুরির নিশ্বাস দূরত্বে ছিলেন অগ্রণী মডেল হাইস্কুলের ওপেনার শাহিন। ৯টি চারের সাহায্যে ১০৩ বলে সে করে ৯১ রান। ফিফটি পেয়েছে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আসিফও (৫০)। সাথে মনিরের ছোট কিন্তু কার্যকরী ৩৮ রানের একটি ইনিংসের সুবাদে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অগ্রণী মডেল হাইস্কুল সংগ্রহ করে ২৫১ রান। রাজেন্দ্রপুর হাইস্কুলের পক্ষে শামীম নেন ৩টি উইকেট। জবাবে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে রাজেন্দ্রপুর হাইস্কুল। সর্বোচ্চ স্কোরার শামীম (২৫) ও জসিম (২২) বাদে বিশ পার হয়নি কারোরই রান। শেষ পর্যন্ত ৪২ ওভারে সব কয়টি উইকেট হারানোর আগে তারা সংগ্রহ করতে পারে ১১০ রান। ১৪১ রানের বড় জয় পেয়েছে অগ্রণী মডেল হাইস্কুল।

    অন্যদিকে চাঁদপুরেও বড় জয় পেয়েছে আক্কাস আলী রেলওয়ে স্কুল। হাসান আলী গভমেন্ট হাইস্কুলকে ১২০ রানে হারিয়েছে তারা। দেরীতে শুরু হওয়া ম্যাচটি নেমে এসেছিল ৪০ ওভারে। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আক্কাস আলী রেলওয়ে স্কুল ওপেনার জিয়ন (৬২) ও ওয়ান ডাউন ব্যাটসম্যান আরিফের (৫২) ব্যাটে ভর করে ২১৯ রানের মাঝারি একটি স্কোর সংগ্রহ করতে সমর্থ্য হয়। জবাবে ওপেনার রায়হান (৪০) ছাড়া বাকি সবাইই ছিলেন ব্যার্থ। ২৭.৪ ওভারে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে মাত্র ৯৯ রানে অলআউট হয় তারা। আরিফ বল হাতেও ছিল সফল। ৫.৪ ওভার বল করে মাত্র ৭ রানে ৪ উইকেট পায় সে। ম্যাচসেরার পুরষ্কারটিও যায় তারই ঝুলিতে।

    বরগুনায় একপেশে ম্যাচে পুলিশ লাইন হাইস্কুল ১৫৯ রানে হারিয়েছে আলিয়া মাদ্রাসাকে। রুপম (৭০) ও আলভি (৬০) ফিফটিতে ভর করে পুলিশ লাইন প্রথমে ব্যাট করে সংগ্রহ করে ২৫৪ রান। জবাবে মাত্র ৯৫ রানে অলআউট হয় আলিয়া মাদ্রাসা। ২০ রানে ৪ উইকেট পেয়েহে পুলিশ লাইন হাইস্কুলের শাকিল।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন