• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    ভারতের কোচ হওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন দ্রাবিড়

    ভারতের কোচ হওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়। অনিল কুম্বলেকে কোচের পদ থেকে সর‍িয়ে দেওয়ার পর ২০১৭ সালে বিসিসিআই থেকে ভারতের এ-দল এবং অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ দ্রাবিড়কে জাতীয় দলের কোচ হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। তবে পারিবারিক কারণ দেখিয়ে তখন সেই প্রস্তাব গ্রহণ করেননি ‘দ্য ওয়াল’ হিসেবে পরিচিত এই ব্যাটসম্যান।

    বিসিসিআইয়ের কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসের চেয়ারম্যান বিনোদ রাই স্পোর্টসকীডাকে  এই তথ্য জানিয়েছেন, “রাহুল বিষয়টি নিয়ে আমাদের সঙ্গে খোলাখুলি কথা বলেছিল। সে বলেছিল, দেখো আমার দুই ছেলে বড় হচ্ছে। এমন সময়ে আমি ভারতীয় দলের সঙ্গে পুরো বিশ্ব ঘুরতে থাকি, তাহলে আমি তাদের সময় দিতে পারব না। আমার মনে হয়, ঘরে থেকে পরিবারকে সময় দেওয়াটা জরুরী।”


    তবে এ-দল এবং অনূর্ধ্ব-১৯ দলের দায়িত্ব পালন করতে কোনও অসুবিধা ছিল না দ্রাবিড়ের। ২০১৭ সালে অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে মনোমালিন্যের জের ধরেই কোচের পদ হারাতে হয় কুম্বলেকে। এরপর দ্রাবিড় প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ায় রবি শাস্ত্রীকে অফার করা হয় পদটি। আর বিনোদ রাইয়ের মতে, ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য সেটা 'উইন-উইন সিচুয়েশন' ছিল, “দেখুন, কোচ হিসেবে দ্রাবিড়, শাস্ত্রী এবং কুম্বলে এরাই বর্তমান সময়ের সেরা। আমরা রাহুলের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। সে অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে নিয়ে কাজ করছিল তখন। সে একটি ভালো দল গড়ে তুলতে রোডম্যাপ তৈরি করেছিল। ফলাফলও বেশ ভালো আসছিল। সে তখন ঐ দলের সঙ্গেই কাজ করতে চাচ্ছিল কারণ তার মনে হয়েছিল কিছু কাজ অপূর্ণ রয়ে গেছে।” গত বছর ভারতের জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির প্রধান পদে নিয়োগ দেওয়া হয় দ্রাবিড়কে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন