• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    ম্যাথাউসের ফেবারিট বায়ার্ন, রবার্তো বলছেন যে কোনো কিছুই সম্ভব

    চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের লাইনআপ ঠিক হয়ে গেছে। নিঃসন্দেহে চারটি ম্যাচের মাঝে বার্সেলোনা এবং বায়ার্ন মিউনিখের ম্যাচটি নিয়েই ফুটবল ভক্তদের আগ্রহ বেশি থাকবে। ২০১৫ সালের পর আবারও ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় মঞ্চে মুখোমুখি দুই জায়ান্ট। আর করোনার কারণে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে বদলে যাওয়া ফরম্যাট ম্যাচটিকে আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তুলেছে। সাবেক বায়ার্ন কিংবদন্তি লোথার ম্যাথাউসের মতে, ম্যাচটিতে পরিষ্কার ফেবারিট বায়ার্ন, অন্যদিকে বার্সেলোনার সার্জি রবার্তো টুর্নামেন্টের নতুন ফরম্যাটে কাউকে ফেবারিট মানছেন না।


    শেষ ষোলোয় ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের চেলসিকে দুই লেগেই রীতিমত শাসন করে কোয়ার্টার ফাইনালে এসেছে বায়ার্ন। দুই লেগ মিলিয়ে বায়ার্ন সাত বার ব্লুজদের জালে বল পাঠিয়েছে। দলের পোলিশ গোলমেশিন রবার্ট লেভানডফস্কি আছেন ফর্মের তুঙ্গে। এমন অবস্থায় বায়ার্নের সামনে বর্তমান বার্সার কোনও সুযোগই দেখছেন না বিশ্বকাপজয়ী জার্মান কিংবদন্তি ম্যাথাউস, “অবশ্যই যেকোনো ম্যাচে ভালো করার মতো সামর্থ্য আছে বার্সেলোনার। তবে আমার মনে হয়, বর্তমান বার্সেলোনার সঙ্গে হারতে বায়ার্নের অনেক ভুল করতে হবে। তবে যেহেতু ম্যাচ মাত্র একটি, সুতরাং যেকোনো কিছুই হতে পারে। কোনও একটি কাজ ভুলভাবে করলেও বাদ পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। দুই লেগের ম্যাচে ভুল শোধরানোর সুযোগ পাওয়া যায়।”

    রিয়াল মাদ্রিদের কাছে লিগ শিরোপা হারানোসহ মাঠ এবং মাঠের বাইরের নানা কারণে বার্সেলোনার মৌসুমটি ভালো যাচ্ছে না। চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে না পারলে ২০০৭-০৮ মৌসুমের পর প্রথমবার ট্রফিবিহীন মৌসুম কাটাতে হতে পারে। শেষ ষোলোয় নাপোলির সঙ্গে প্রথম লেগে ড্র করলেও ফিরতি লেগে ঘরের মাঠে মেসি ম্যাজিকে লিসবনের টিকিট পেয়েছে কাতালান ক্লাবটি।

    আর বার্সেলোনার সার্জি রবার্তো নকআউট রাউন্ডের নতুন ফরম্যাটে কাউকেই ফেবারিট মনে করছেন না, “এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে কোনও ফেবারিট নেই। যে কেউ জিততে বা হারতে পারে। এটা ওয়ান-অফ ম্যাচ, এটা ফাইনালের মতো হবে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন