• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    'পিএসজির বিপক্ষে ভালো কিছু করাটা আমাদের দায়িত্ব', বললেন আটালান্টা কোচ

    'পিএসজির বিপক্ষে ভালো কিছু করাটা আমাদের দায়িত্ব', বললেন আটালান্টা কোচ    

    চ্যাম্পিয়নস লিগে আটালান্টার স্বপ্নযাত্রা চলছেই। প্রথমবার ইউরোপের এই অভিজাত প্রতিযোগিতায় খেলতে এসেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে তারা, সেমির দরজায় কড়া নাড়ছে এখন। রাতে নেইমার-এমবাপেদের হতাশ করতে পারলেই ইতিহাস রচনার পথে আরেক ধাপ এগিয়ে যাবে ক্লাবটি। তবে সেই ধরনের ইতিহাস গড়ার বিষয় এখনও দূরের ব্যাপার। তার আগে করোনায় ইতালির সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বের্গামো অঞ্চলের জন্য এই ম্যাচে ভালো কিছু করতে চায় আটালান্টা। এই অঞ্চলের ক্লাব হিসেবে এটিকে নিজেদের দায়িত্ব মনে করছেন দলটির ম্যানেজার জিয়ান পিয়েরো গাস্পেরিনি।


    পিএসজির বিপক্ষে ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে এই কথাটিই জোর দিয়ে বললেন আটালান্টা ম্যানেজার, “এই ম্যাচটি নিয়ে মানুষের আগ্রহের কথা আমরা জানি, বের্গামোর লোকেরা ক্লাবটিকে অনেক ভালোবাসে। আর এই বছর যা কিছু হয়েছে তারপর আমরা আরও বেশি অনুপ্রাণিত। এটি একটি ফুটবল ম্যাচ, কিন্তু আমরা এতে আমাদের অঞ্চলকে আমরা সর্বোচ্চভাবে প্রতিনিধিত্ব করতে চাই।”

    আটালান্টার পুরো স্কোয়াড এই ম্যাচের জন্য নিজেদের ভালোভাবে প্রস্তুত করে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন গাস্পেরিনি, “আমরা মানসিকভাবে অত্যন্ত ভালো অবস্থায় থেকেই এই ম্যাচ খেলতে নামব। লকডাউনের পর আমরা কিছু ম্যাচে অনেক ভালো করেছি। ইউরোপিয়ান ঐতিহ্য ছাড়াও যে একটি দল দারুণ উদ্যমে খেলে বড় লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যেতে পারে, আমরা তার জলজ্যান্ত উদাহরণ। নিজেদের হতাশ না করাটা আমাদের দায়িত্ব। আমরা দেখিয়ে দিতে চাই যে, আটালান্টা বড় ক্লাবগুলোর সঙ্গে পালা দিতে তৈরি।”

    নিজের দলকে নিয়ে আত্মবিশ্বাসী গাস্পেরিনি, তবে নেইমারের মতো তারকা ফরোয়ার্ডকে ঠেকাতে ম্যাচজুড়ে সচেষ্ট থাকতে হবে বলে মনে করেন তিনি, “সে (নেইমার) নিঃসন্দেহে বিশ্বসেরাদের একজন। যেকোনো দলের জন্যই তাকে মোকাবিলা করাটা কঠিন। তার বিপক্ষে রক্ষণের সেরা পন্থা হচ্ছে ভালো খেলা। আমাদের রক্ষণ কাঠামো দিয়ে তাঁকে ঠেকানোর চেষ্টা করব। আমরা আগেও সেরা খেলোয়াড়দের মুখোমুখি হয়েছি।”

    রাত ১ টায় পর্তুগালের লিসবনে প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে পিএসজির বিপক্ষে মাঠে নামবে আটালান্টা।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন