• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    ইউয়েফার হুমকির প্রতিবাদ জানাল বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ-জুভেন্টাস

    ইউয়েফার হুমকির প্রতিবাদ জানাল বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ-জুভেন্টাস    

    ইউরোপিয়ান সুপার লিগে যে তিনটি ক্লাব এখনো আছে তাদের বিপক্ষে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতে পারে আভাস দিয়েছিল ইউয়েফা। এর প্রতিবাদে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ এক যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছে তারা এই ধরনের হুমকির নিন্দা জানায়। একই সঙ্গে সুপার লিগ নিয়ে তাদের আইডিয়া থেকে যে সরছে না, সেটাও বলেছে। 

    ইউরপিয়ান ফুটবলে সরগরম ফেলে দিয়েছিল সুপার লিগের ঘোষণা। শুরুতে ১২টি ক্লাব সেখানে থাকলেও সমর্থকদের রোষের মুখে একে একে সরে দাঁড়িয়েছে ছয়টি ইংলিশ ক্লাব ম্যান ইউনাইটেড, ম্যান সিটি, চেলসি, লিভারপুল, টটেনহাম ও আর্সেনাল। পরের দিন এসি মিলান, ইন্টার মিলান ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও হেঁটেছে সেই পথে। কিন্তু রিয়াল,বার্সা ও জুভেন্টাস এখনো সেই ধারণা বাতিল করে দেয়নি। এর মধ্যে ইউয়েফা জানিয়েছে, যে ১২টি ক্লাব সুপার লিগে যোগ দিয়েছিল, তাদের শাস্তি পেতে হবে। সরে দাঁড়ানোর নয়টি ক্লাবের ইউয়েফার প্রাইজমানির সামনের মৌসুমের জন্য ৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। অন্যদিকে এই নয়টি ক্লাবও সসুপার লিগের জরিমানা বাবদ ১৫ মিলিয়ন ইউরো শিশুদের জন্য দান করতে রাজি হয়েছে। 

    তবে বাকি তিন ক্লাবকে শাস্তি পেতে হবে, এমন ঘোষণার পর এই তিন ক্লাব এক বিবৃতিতে জানিয়েছে  তারা এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাচ্ছে। তারা বলছে এই ধরনের হুমকি আইনগতভাবে অবৈধ। এবং ট্রাইবুনাল সুপার লিগের পক্ষে এর মধ্যেই রায় দিয়েছে। সেজন্য ফুটবলকে আরও টেকুসি করা, ক্লাবগুলোর আর্থিক সক্ষমতা বাড়ানো ও নতুন প্রজন্মকে ফুটবলের দিকে আকৃষ্ট করার জন্য তারা চেষ্টা চালিয়ে যাবে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন