• বাংলাদেশের জিম্বাবুয়ে সফর
  • " />

     

    জিম্বাবুয়ের ২৪০, তামিমের দুর্দান্ত ক্যাচ, শরিফুলের চার উইকেট ছাপিয়ে প্রশ্ন টেলরের আউট নিয়ে

    জিম্বাবুয়ের ২৪০, তামিমের দুর্দান্ত ক্যাচ, শরিফুলের চার উইকেট ছাপিয়ে প্রশ্ন টেলরের আউট নিয়ে    

    প্রথম ওয়ানডের ধাক্কা সামলে এবার ভালোমতোই ঘুরে দাঁড়িয়েছে জিম্বাবুয়ে। ওয়েসলে মাদেভেরের ফিফটির পর লড়াই করার মতো একটা সংগ্রহ হয়েছে। অবশ্য তামিম দুর্দান্ত ওই ক্যাচ না নিলে জিম্বাবুয়ের রান আরও বেশি হতেই পারত। তবে সবকিছু ছাপিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ব্রেন্ডন টেলরের আউট নিয়ে। এমন অদ্ভুত আউট তো বেশি দেখা যায় না। 

    ২৫তম ওভারে শরিফুলের করা বলটা আপার কাট করতে গিয়ে মিস করেছিলেন টেলর। বল ব্যাটে লাগেনি, আম্পায়ার আউটও দেননি। কিন্তু খানিক পর বাংলাদেশ লেগ আম্পায়ারের দৃষ্টি আকর্ষণ করল। রিপ্লেতে দেখা গেল, শট করার পর ফলো থ্রুতে বলটা দোলাতে গিয়ে বেল ফেলে দিয়েছেন টেলর। আম্পায়ার আউটের সংকেত দিলেন, অবিশ্বাসে টেলর মাঠ ছাড়লেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠে গেছে, বল উইকেটকিপারের হাতে যাওয়ার পরেই কি ডেড হয়ে যায়নি? সেক্ষেত্রে তো এটা আউট হয় না। আবার টেলর শট শেষের পর শ্যাডো করতে গিয়ে করেছেন কি না সেটা নিয়েও আছে প্রশ্ন। তবে শেষ পর্যন্ত তৃতীয় আম্পায়ার আউট দেওয়ায় ৪৬ রানেই মাঠ ছাড়েন টেলর। বাংলাদেশের বিপক্ষে এটি হিট উইকেটের সপ্তম ঘটনা। 

    অবশেষে তার আগেই আরও অদ্ভুতভাবে আউট হতে পারতেন টেলর। একবার তার জুতা খুলে গিয়ে স্টাম্পে লেগেছিল, ভাগ্য ভালো বেল পরেনি। 

    তবে টেলরের ইনিংসটা বড় হলে জিম্বাবুয়ের গল্প অন্যরকম হতে পারত। আজ শুরুতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই তাসকিন তুলে নিয়েছেন কামুনখোয়ামুকে। এরপর মারুমানি আউট হয়েছেন মিরাজের বলে। চাকাভা ভালো করছিলেন, কিন্তু তিনি বোল্ড হয়ে যান সাকিবের বলে। এরপর টেলরের আউটের মাধ্যমে দৃশ্যপটে শরিফুল। 

    মায়ার্সকে আউট করে সাকিব পেয়েছেন দ্বিতীয় উইকেট। মাদেভেরে দারুণ খেলছিলেন, দারুণ কিছু শটে ফিফটিও পেয়েছিলেন। কিন্তু শরিফুলকে ইনসাইড আউট করতে গিয়ে উড়িয়ে মারলেন, লং অফ থেকে দৌড়ে দারুণ এক ক্যাচ নিলেন তামিম। শেষ দিকে শরিফুল পেয়েছেন আরও দুই উইকেট, আর রাজাকে আউট করেছেন সাইফ উদ্দিন। জিম্বাবুয়ের ইনিংস শেষ হয়েছে ২৪০ রানে। 

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন